বৃহস্পতিবার, ০৮ জুন ২০২৩, ২৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

চা-বিক্রেতা খালেকের স্কুল শতভাগ পাস

  • Reporter Name
  • Update Time : ১২:১১:৩৫ অপরাহ্ন, সোমবার, ১ জুন ২০২০
  • ৪৪ Time View

বনলতা নিউজ ডেস্ক.
রোববার (৩১ মে) এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফল প্রকাশ হয়েছে। পরীক্ষায় কুমিল্লার বরুড়া উপজেলার নলুয়া চাঁদপুর গ্রামের চা-বিক্রেতা আব্দুল খালেকের প্রতিষ্ঠিত নলুয়া চাঁদপুর হাইস্কুল থেকে শতভাগ পাস করেছে।
নলুয়া চাঁদপুর হাইস্কুলের প্রধান শিক্ষক রফিকুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, এ বছর স্কুল থেকে মোট ৪৬ জন শিক্ষার্থী এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নেয়। সবাই কৃতকার্য হয়েছে। এর আগেও এই স্কুল থেকে শতভাগ পাস করেছে শিক্ষার্থীরা। তবে এবার সর্বাধিক জিপিএ-৫ পেয়েছে। নলুয়া চাঁদপুর স্কুল থেকে এবার সপ্তম ব্যাচ এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নিয়েছে।
এসএসসিতে অংশগ্রহণকারী শিক্ষার্থীদের মধ্যে তিনজন জিপিএ-৫ পেয়েছে, ২৭ জন পেয়েছে এ, ১৫ জন পেয়েছে এ মাইনাস এবং একজন বি।
কুমিল্লার প্রত্যান্ত এলাকার দরিদ্র চা-বিক্রেতা আব্দুল খালেকের সারা জীবনের সঞ্চয় দিয়ে কেনা একখন্ড জমি দান করে এই স্কুল গড়ে তুলেছেন। গত নভেম্বর মাসে স্কুলটি এমপিওভুক্ত করা হয়েছে
আব্দুল খালেক বলেন, ছাত্রছাত্রীদের এই ফলাফলে আমি খুবই খুশি। এখান থেকে পাস করা শিক্ষার্থীরা একসময় নিজের এলাকা ও দেশের উন্নয়নে অবদান রাখবে।

Tag :
Popular Post

গুরুদাসপুরে বঙ্গবন্ধু জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্ণামেন্ট শুরু

চা-বিক্রেতা খালেকের স্কুল শতভাগ পাস

Update Time : ১২:১১:৩৫ অপরাহ্ন, সোমবার, ১ জুন ২০২০

বনলতা নিউজ ডেস্ক.
রোববার (৩১ মে) এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফল প্রকাশ হয়েছে। পরীক্ষায় কুমিল্লার বরুড়া উপজেলার নলুয়া চাঁদপুর গ্রামের চা-বিক্রেতা আব্দুল খালেকের প্রতিষ্ঠিত নলুয়া চাঁদপুর হাইস্কুল থেকে শতভাগ পাস করেছে।
নলুয়া চাঁদপুর হাইস্কুলের প্রধান শিক্ষক রফিকুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, এ বছর স্কুল থেকে মোট ৪৬ জন শিক্ষার্থী এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নেয়। সবাই কৃতকার্য হয়েছে। এর আগেও এই স্কুল থেকে শতভাগ পাস করেছে শিক্ষার্থীরা। তবে এবার সর্বাধিক জিপিএ-৫ পেয়েছে। নলুয়া চাঁদপুর স্কুল থেকে এবার সপ্তম ব্যাচ এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নিয়েছে।
এসএসসিতে অংশগ্রহণকারী শিক্ষার্থীদের মধ্যে তিনজন জিপিএ-৫ পেয়েছে, ২৭ জন পেয়েছে এ, ১৫ জন পেয়েছে এ মাইনাস এবং একজন বি।
কুমিল্লার প্রত্যান্ত এলাকার দরিদ্র চা-বিক্রেতা আব্দুল খালেকের সারা জীবনের সঞ্চয় দিয়ে কেনা একখন্ড জমি দান করে এই স্কুল গড়ে তুলেছেন। গত নভেম্বর মাসে স্কুলটি এমপিওভুক্ত করা হয়েছে
আব্দুল খালেক বলেন, ছাত্রছাত্রীদের এই ফলাফলে আমি খুবই খুশি। এখান থেকে পাস করা শিক্ষার্থীরা একসময় নিজের এলাকা ও দেশের উন্নয়নে অবদান রাখবে।