গুরুদাসপুরে গভীর রাতে মুদি দোকানে আগুন ১২ লক্ষাধিক টাকার মালামাল পুড়ে ছাই।

বনলতা নিউজ ডেস্ক.বনলতা নিউজ ডেস্ক.
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ১০:২৯ AM, ১১ জুন ২০২০

বিশেষ প্রতিবেদক দৈনিক বনলতা.

গুরুদাসপুরে গভীর রাতে মুদি দোকানে আগুন ১২ লক্ষাধিক টাকার মালামাল পুড়ে ছাই হয়ে গেছে বলে জানাযায়।

বুধবার গভীর রাতে গুরুদাসপুর উপজেলার খুবজীপুর ইউনিয়নের বিলশা গ্রামে নিহা নিশাদ নামের এক মুদি দোকানে আগুন লেগে পুড়ে সয়লাব হয়ে গেছে দোকানের সমস্ত মালপত্র।
স্থানীয় ও গুরুদাসপুর থানার অভিযোগ সুত্রে জানাযায়, ১০ মে রাত দুইটার দিকে দোকানের মালিক মো সাহবুদ্দিন প্রকৃতির ডাকে সারা দিতে বাড়ির বাহিরে বের হন। দোকানের দিকে তাকাতেই দেখতে পান দাউ দাউ করে আগুন জ্বলছে তার দোকান ঘরে। এ সময় তার ডাক চিতকারে প্রতিবেশীরা এসে দোকানের আগুন নিভানোর চেষ্টা করে। ইতিমধ্যেই দোকানের সকল মালামাল পুড়ে ভস্মিভুত হয়ে যায়।
দোকানের মালিক সাহবুদ্দিন জানান, দোকানে প্রায় ১৫ লক্ষাধিক টাকার মাল ছিল। দ্রুত আগুন নিভানোর ফলে কিছু মাল রক্ষা করা সম্ভব হয়েছে। তার ভাষ্যমতে কেউ শত্রুতা করে আমার দোকানে আগুন দিয়েছে। এব্যাপারে সে ১১ মে সকালে গুরুদাসপুর থানায় একটা সাধারন ডায়েরী করেছেন। বিদ্যুতের শর্ট সার্কিট থেকে এ অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটতে পারে বলে স্থানীয়দের ধারনা।

খুবজীপুর ইউপি চেয়ারম্যান মো,মনিরুল ইসলাম দোলন জানান, সাহবুদ্দিনের দোকান ঘর থেকেই আগুনের সূত্রপাত হয়। পরে আগুন দ্রুত নিভানোর ফলে ক্ষতির পরিমান একটু কম হয়েছে। তাছাড়া দোকানের পার্শ্ববর্তী সকল বাড়িতে আগুন ছড়িয়ে পড়ত।

অভিযোগে উল্লেখ্য করা হয় ওই মুদি দোকানের সকল মালামাল ও নগত টাকা পয়সাসহ প্রায় ১২ লক্ষাধিক টাকার মালপত্র পুড়ে ছাই হয়ে যায়। গ্রামের লোকজন কয়েক ঘন্টা চেষ্টার পর আগুন নিয়ন্ত্রনে আনে। ওই মুহুর্তে ফায়ার সার্ভিসের কথা স্মরন না থাকায় তাদের জানানো হয়নি।

আপনার মতামত লিখুন :