আত্রাই নদীর ভঙ্গনে বিলিনের পথে সিংড়ার কয়েকটি গুরুত্বপুর্ণ বাজার

বনলতা নিউজ ডেস্ক.বনলতা নিউজ ডেস্ক.
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ১২:৫৭ PM, ১২ অগাস্ট ২০২০

মাহিদুল ইসলাম,সিংড়া (নাটোর) প্রতিবেদক.
নাটোরের সিংড়া উপজেলার চামারী ইউনিয়নের বিলদহর বাজার, কলম ইউনিয়নের পার সাঔল স্কুল ও চামারী ইউনিয়নের হোলাইগাড়ি বাজার সংলগ্ন নদী তীরবর্তী এলাকা হুমকির মুখে রয়েছে। নদী পারে বাঁধ নির্মানের দাবি জানিয়েছে স্থানীয় বাসিন্দা ও ব্যবসায়ীরা।
প্রতি বছর বন্যার ভাঙ্গনে নদী গর্ভে বিলিন হচ্ছে বাজারগুলো। ইতিমধ্যেই বসতভিটা এবং জমিসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান নদী গর্ভে বিলীন হয়ে সর্বস্ব হারিছে অনেকেই। পানি উন্নয়ন বোর্ড এবং আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক এমপি মহোদয়ের সুদৃষ্টি কামনা করেছে স্থানীয়রা।
উপজেলার ঐতিহ্যবাহী বিলদহর হাট। প্রতি রবি ও বৃহস্পতিবার এখানে হাট বসে। দুর দুরান্ত থেকে মানুষ হাটে আসে। এ হাটকে ঘিড়ে গড়ে উঠেছে ছোট বড় অনেক স্থাপনা। সপ্তাহে প্রতিদিন বাজারে বিপুল পরিমান মানুষের সমাগম ঘটে। বর্ষার সময় নৌকা যোগে বিভিন্ন অδল থেকে লোক সমাগম ঘটে ওই হাটে। সরকারের বিপুল পরিমান রাজস্ব আয় হয় এ হাট থেকে। হাটের সাথে রয়েছে পোস্ট অফিস, মসজিদ, ব্যাংক এবং বড় বড় ব্যবসা প্রতিষ্ঠান। নদী তীর জুড়ে রয়েছে কয়েকটি গ্রাম। সেগুলোও এখন হুমকীর মুখে।
স্থানীয় হাট ইজারাদার আ: মমিন মন্ডল জানান, চলনবিলের বেশ কয়েকটি গ্রামের মানুষ প্রতিনিয়ত বাজার করতে আসে নৌকা যোগে এ হাটে। প্রতিবছর ভেঙ্গে নদীতে চলে যাচ্ছে বাজারের বহু স্থাপনা। পাল্টে যাচ্ছে বাজারের মানচিত্র। এই বাজারকে রক্ষা করতে নদীর পারে বাঁধ নির্মান করা দরকার।
স্থানীয় বাসিন্দা ও ব্যবসায়ী রুহুল আমিন জানান, বিলদহর প্রচীন Ļতিহ্যবাহী গ্রাম। হাটেরও বেশ সুনাম রয়েছে। কিন্তু প্রতিবছর ভাঙ্গনের ফলে হারিয়ে যাচ্ছে হাটের আয়তন। তাছাড়া বাঁধ না থাকায় নদীর পারে নোংরা আবর্জনায় পরিবেশ দুষন ঘটছে। এজন্য তিনি বাঁধ নির্মান এবং বাজারে ড্রেনেজ ব্যবস্থার দাবি জানান।
উপসহকারী প্রকৌশলী শামিম আল মামুন জানান, সিংড়া উপজেলা ৪ টি নদী দঁ¦াড়া বেষ্ঠিত। নদী তীরবর্তী এলাকা বিধায় বন্যার সময় পাউবো সার্বক্ষনিক মানুষের পাশে থেকে সার্বিক সহযোগিতা করে আসছে। এবারো বন্যায় কয়েকটি বাঁধ ভেঙ্গে ক্ষতি হয়েছে।
আমি ইতোমধ্য বিলদহর, হোলাইগাড়ি, সাঔল স্কুল পরিদর্শন করেছি। সেখানে ব্লক দিয়ে বাঁধ নির্মান করা দরকার। এজন্য আমরা উর্ধত্বন কর্তৃপক্ষকে ব্যাপারটি ইতিমধ্যেই অবগত করার চেষ্টা করছি।
চামারী ইউপি চেয়ারম্যান রশিদুল ইসলাম মৃধা জানান, বিলদহর হাট ঐতিহ্যের হাট। ভাঙ্গন রোধ এবং হাটের প্রাণ ফিরে আনতে হলে বাঁধ নির্মান খুবই জরুরী। মাননীয় আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক এমপির মাধ্যমে আমরা এ বিষয়ে কার্যকরী সমাধান পাবো বলে আশা রাখি।

আপনার মতামত লিখুন :