৭১ এর পরাজিত শক্তিকে মোকাবেলা করতে প্রস্তুত বঙ্গবন্ধুর সৈনিকরা  — এমপি আব্দুল কুদ্দুস

Md MagemMd Magem
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৩:৫২ PM, ২১ অগাস্ট ২০২০

 

রাজু আহমেদ, নাটোর:
নাটোর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি,  নাটোর -৪ আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব অধ্যাপক আব্দুল কুদ্দুস বলেছেন, ৭১ এর পরাজিত ঘাতকরা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কে হত্যা করেছিলো, এখনো তাঁর পেতাত্ন রাজাকার, আলবদর শক্তি বেঁচে আছে। যারা ২১ শে আগষ্ট আমার প্রানপ্রিয় নেত্রীকে হত্যা করতে চেয়েছিলো। কিন্তু তাঁরা ব্যর্থ হয়েছে। তাদের ষড়যন্ত্র এখনো থেমে নাই। দেশকে ধংস্বস্তুপে পরিনত করার মধ্য দিয়ে তাদের ষড়যন্ত্র কে সফল করতে চায়। বঙ্গবন্ধুর আদর্শের সৈনিকরা তাদের সকল ষড়যন্ত্র নস্যাৎ করে দিতে প্রস্তৃত। আর কোনো গ্রেনেড হামলা জাতি দেখতে চায় না। ৭১ এর পরাজিত শক্তির সকল ষড়যন্ত্র নস্যাৎ করে দিতে বঙ্গবন্ধুর সৈনিকরা প্রস্তৃত বলে অঙ্গিকার ব্যক্ত করেন।

শুক্রবার বিকেল ৫ টায় সিংড়া উপজেলা ও পৌর আওয়ামী লীগের যৌথ আয়োজনে ২১ আগষ্ট গ্রেনেড হামলার প্রতিবাদ, ঘাতকদের বিচারের দাবিতে এবং নিহতের আত্নার মাগফেরাত কামনায় দোয়া ও আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন।

উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এডভোকেট ওহিদুর রহমান শেখ এর সভাপতিত্বে প্রধান বক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখেন, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক এমপি।

প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক এমপি বলেছেন, ২১ শে আগষ্ট নির্মম গ্রেনেড হত্যার প্রতিবাদে আমরা সেদিন রাজপথে নেমেছিলাম। আমাদের উপর বিএনপি জামাত হামলা করেছিলে, মামলা হয়েছিলো। জেল খাটতে হয়েছে। আমরা তবু রাজপথ ছাড়িনি। অত্যাচার নির্যাতন সহ্য করেছি। আল্লাহর রহমতে জনগনের ভালোবাসায় শেখ হাসিনা সরকার ক্ষমতায় এসেছে।

তিনি আরো বলেন, জননেত্রী শেখ হাসিনা সরকার বাংলাদেশ কে উন্নত রাষ্ট্রে পরিনত করার লক্ষে কাজ চলছে। প্রযুক্তিবিদ সজিব ওয়াজেদ জয়ের নেতৃত্বে ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার লক্ষে আমরা কাজ করছি। বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলার ডিজিটাল রুপ বাস্তবায়নে আমরা সচেষ্ট।

বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, লালপুর বাগাতিপাড়ার সংসদ সদস্য শহিদুল ইসলাম বকুল।

সংসদ সদস্য শহিদুল ইসলাম বকুল বলেন, বঙ্গবন্ধুর রক্তের শপথ নিয়ে আমাদের কে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। ২১ শে আগষ্ট গ্রেনেড হামলায় আমাদের প্রাণপ্রিয় নেত্রীকে হত্যা করতে চেয়েছিলো, কিন্তু তারা পারেনি। বঙ্গবন্ধু কন্যার নেতৃত্বে দেশকে গঠন করতে হবে। ঘাতকদের বিষদাঁত ভেঙ্গে দিতে হবে।

উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ন সাধারন সম্পাদক আরিফুল ইসলাম আরিফের পরিচালনায় আরো বক্তব্য রাখেন, গুরুদাসপুর উপজেলা চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন, জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক নেতা বিশ্বনাথ দাস কাশিনাথ, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারন সম্পাদক এডভোকেট জিল্লুর রহমান, সিংড়া পৌরসভার মেয়র আলহাজ্ব জান্নাতুল ফেরদৌস, উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ন সম্পাদক, চৌগ্রাম ইউপি চেয়ারম্যান জাহেদুল ইসলাম ভোলা,সহ সভাপতি আব্দুর রাজ্জাক খান, কোষাধ্যক্ষ সুব্রত কুমার, ডাহিয়া ইউপি চেয়ারম্যান এম আবুল কালাম, তাজপুর ইউপি চেয়ারম্যান মিনহাজ উদ্দিন, জেলা পরিষদ সদস্য সালাহউদ্দিন আল আজাদ ছানা, মানসী ভট্রাচার্জ, রায়হান কবির টিটু, সাজ্জাদ হোসেনসহ আরো অনেকে।

দোয়া পরিচালনা করেন, পৌর ওলামা লীগের সভাপতি মাওলানা ইদ্রীস আলী সুমন।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান শামিমা হক রোজি, মরহুম শাজাহান আলীর পুত্র শরফরাজ নেওয়াজ বাবু, উপজেলা আওয়ামীলীগের ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক মাওলানা রুহুল আমিন সহ ইউপি চেয়ারম্যান বৃন্দ ও অঙ্গসংগঠনের সকল স্তরের নেতৃবৃন্দ।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপজেলা চেয়ারম্যান ও পৌর আওয়ামীলীগ সভাপতি শফিকুল ইসলাম শফিকের নাম থাকলে ও তিনি উপস্থিত ছিলেন না।

আপনার মতামত লিখুন :