ঈদের শাড়ি ফিরিয়ে দেওয়ায় ওই শাড়িতেই ঝুলে আত্মহত্যা মেয়ের

মোঃ মাজেম আলীমোঃ মাজেম আলী
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০২:২৫ AM, ২৬ এপ্রিল ২০২১

বড়াইগ্রাম (নাটোর) প্রতিনিধি.

নাটোরের বড়াইগ্রামে ঈদ উপলক্ষে মাকে দেয়া নতুন শাড়ি ফিরিয়ে দেয়ায় অভিমানে সেই শাড়িতেই গলায় ফাঁস নিয়ে আত্মহত্যা করেছেন মেয়ে শরিফা বেগম (৪০)।
রোববার নিহতের লাশের ময়নাতদন্ত সম্পন্ন হয়েছে। এর আগে শনিবার সন্ধ্যায় উপজেলার রামাগাড়ী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহত শরিফা রামাগাড়ী গ্রামের খোরশেদ শাহর মেয়ে।
জানা যায়, প্রায় ১০ বছর আগে এক ছেলেসন্তানসহ স্বামীর সঙ্গে শরিফা বেগমের ছাড়াছাড়ি হয়ে যায়। এরপর থেকে দরিদ্র বাবার বাড়িতে ছেলেকে রেখে তিনি ঢাকায় গার্মেন্টসে চাকরি করতেন। ইতোমধ্যে স্বামীর সঙ্গে ছাড়াছাড়ি হয়ে আরও দুই বোন বাবার বাড়িতে এসে উঠেছে।
গত বছর করোনা মহামারির প্রভাবে গার্মেন্টসের চাকরি হারিয়ে শরিফা বেগমও বাবার বাড়িতে ফিরে আসেন। এতে দরিদ্র বাবা-মা চরম বিপাকে পড়েন। নানা অভাব-অনটনের জেরে সম্প্রতি তাদের সম্পর্কের অবনতি ঘটে। এ অবস্থায় শনিবার শরিফা তার মা সফুরা বেগমকে ঈদ উপলক্ষে একটি নতুন শাড়ি কিনে দেন।
কিন্তু তার মা শাড়িটি নিতে অস্বীকৃতি জানান। এতে অভিমানে শোবার ঘরের তীরের সঙ্গে ওই শাড়ি বেঁধে গলায় ফাঁস নিয়ে তিনি আত্মহত্যা করেন।

আপনার মতামত লিখুন :