বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৫ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

জেলেদের জালে ধরা পড়লো আরও ৭ সেইল ফিশ

  • Reporter Name
  • Update Time : ০৬:৩২:৩১ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৭ অগাস্ট ২০২১
  • ১০৫ Time View

বিশেষ প্রতিবেদক কলাপাড়া(পটুয়াখালী).

পটুয়াখালীর মহিপুর মৎস্য বন্দরে জেলেদের জালে আবারও ধরা পড়েছে বিরল প্রজাতির সাতটি সেইল ফিশ। বৃহস্পতিবার (২৬ আগস্ট) রাতে কুয়াকাটা সংলগ্ন গভীর বঙ্গোপসাগরে কালাম উল্লাহ নামের এক মাঝির জালে পাঁচটি ও সোবাহান নামের অপর এক মাঝির জালে দুটি সেইল ফিশ ধরা পড়ে।সাতটি মাছের মধ্যে তিনটির ওজন ৬০ কেজি করে।

একটির ওজন ৪৫ কেজি। বাকি তিনটির ওজন ৩১ কেজি করে। মাছগুলো স্থানীয় পাইকারী ব্যবসায়ী হারুন সাত হাজার ৬০০ টাকায় কিনে নেন।শুক্রবার (২৭ আগস্ট) দুপুরে মাছগুলো মৎস্য বন্দর মহিপুরের টিপু ফিশ নামের গদিতে বিক্রি করতে নিয়ে আসা হয়। বিরল প্রজাতির এ মাছ দেখতে উৎসুক জনতা ভিড় জমান।

এর আগে বৃহস্পতিবার নুরুন্নবী মাঝি নামের এক জেলে ৬০ ও ৫৫ কেজি ওজনের আটটি সেইল ফিস এ বাজারে বিক্রির জন্য নিয়ে আসেন। মাছগুলো বুধবার (২৫ আগস্ট) রাতে ধরা পড়েছিল।জেলেরা জানান, দ্রুতগামী এ মাছ এর আগে কখনও তাদের জালে ধরা পড়েনি। মাছের ওজন বেশি হওয়ায় ঘাটে নিয়ে আসতে তাদের বেশ কষ্ট হয়েছে।

কলাপাড়া উপজেলা জ্যেষ্ঠ মৎস্য কর্মকর্তা অপু সাহা জানান, মাছগুলো খেতে বেশ সুস্বাদু হওয়ার দেশের বাইরে বেশ চাহিদা রয়েছে। স্থানীয়ভাবে মাছটিকে ‘পাখি মাছ’ বলা হলেও এর ইংরেজি নাম ‘সেইল ফিশ’।

Tag :
About Author Information

Daily Banalata

Popular Post

জেলেদের জালে ধরা পড়লো আরও ৭ সেইল ফিশ

Update Time : ০৬:৩২:৩১ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৭ অগাস্ট ২০২১

বিশেষ প্রতিবেদক কলাপাড়া(পটুয়াখালী).

পটুয়াখালীর মহিপুর মৎস্য বন্দরে জেলেদের জালে আবারও ধরা পড়েছে বিরল প্রজাতির সাতটি সেইল ফিশ। বৃহস্পতিবার (২৬ আগস্ট) রাতে কুয়াকাটা সংলগ্ন গভীর বঙ্গোপসাগরে কালাম উল্লাহ নামের এক মাঝির জালে পাঁচটি ও সোবাহান নামের অপর এক মাঝির জালে দুটি সেইল ফিশ ধরা পড়ে।সাতটি মাছের মধ্যে তিনটির ওজন ৬০ কেজি করে।

একটির ওজন ৪৫ কেজি। বাকি তিনটির ওজন ৩১ কেজি করে। মাছগুলো স্থানীয় পাইকারী ব্যবসায়ী হারুন সাত হাজার ৬০০ টাকায় কিনে নেন।শুক্রবার (২৭ আগস্ট) দুপুরে মাছগুলো মৎস্য বন্দর মহিপুরের টিপু ফিশ নামের গদিতে বিক্রি করতে নিয়ে আসা হয়। বিরল প্রজাতির এ মাছ দেখতে উৎসুক জনতা ভিড় জমান।

এর আগে বৃহস্পতিবার নুরুন্নবী মাঝি নামের এক জেলে ৬০ ও ৫৫ কেজি ওজনের আটটি সেইল ফিস এ বাজারে বিক্রির জন্য নিয়ে আসেন। মাছগুলো বুধবার (২৫ আগস্ট) রাতে ধরা পড়েছিল।জেলেরা জানান, দ্রুতগামী এ মাছ এর আগে কখনও তাদের জালে ধরা পড়েনি। মাছের ওজন বেশি হওয়ায় ঘাটে নিয়ে আসতে তাদের বেশ কষ্ট হয়েছে।

কলাপাড়া উপজেলা জ্যেষ্ঠ মৎস্য কর্মকর্তা অপু সাহা জানান, মাছগুলো খেতে বেশ সুস্বাদু হওয়ার দেশের বাইরে বেশ চাহিদা রয়েছে। স্থানীয়ভাবে মাছটিকে ‘পাখি মাছ’ বলা হলেও এর ইংরেজি নাম ‘সেইল ফিশ’।