বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৬ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

গুরুদাসপুরে পাগল আখ্যা দিয়ে যুবককে পিটিয়ে যখম!

  • Reporter Name
  • Update Time : ০২:১৪:২৫ অপরাহ্ন, সোমবার, ৩০ অগাস্ট ২০২১
  • ১৩৩ Time View

গুরুদাসপুর (নাটোর) প্রতিনিধি.

 নাটোরের গুরুদাসপুরে পাগল খেতাব দিয়ে লিটন (২৮) নামের এক যুবককে বেধরক পিটিয়ে যখম করা হয়েছে। গুরুত্বর আহত ওই যুবককে গুরুদাসপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। সোমবার সকাল ৯ টার দিকে উপজেলার বামনকোলা গ্রামে ওই ঘটনা ঘটেছে।
এঘটনায় যুবকের মা বেবি বেগম বাদি হয়ে প্রতিবেশি চারজনকে অভিযুক্ত করে গুরুদাসপুর থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।
ওই যুবকের মা বেবি বেগম অভিযোগ করেন, তার ছেলে কথা বেশি বললেও পাগল নয়। অথচ পাগল খেতাব দিয়ে এলোপাথারিভাবে পিটিয়ে যখম করা হয়েছে। এসময় লিটনের কাছ থেকে মোবাইল ফোন, এটিএম কার্ড, মোটরসাইকেলের চাবি ছিনিয়ে নেওয়া হয়েছে। তিনি এই ঘটনার বিচার দাবি করেন।

তিনি বলেন, প্রতিবেশি আব্দুস সামাদ সরকারের সাথে জমি নিয়ে বিরোধ চলছিল। বিরোধের সূত্র ধরে এরআগেও বেশ কয়েকবার লিটনকে মারপিট করা হয়। প্রতিবাদ করতে গেলে লিটনকে পাগল আখ্যা দেওয়া হয়। সবশেষ জমি মাপযোগের জন্য সোমবার চাচা আব্দুস সামাদের কাছে যান। এসময় ক্ষিপ্ত হয়ে আব্দুস সামাদ ও তার সন্তানেরা লিটনকে বেদরক পিটিয় যখম করেন।
গুরুদাসপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. আব্দুর রাজ্জাক বলেন, এঘটনায় অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে।

Tag :
About Author Information

Daily Banalata

Popular Post

গুরুদাসপুরে পাগল আখ্যা দিয়ে যুবককে পিটিয়ে যখম!

Update Time : ০২:১৪:২৫ অপরাহ্ন, সোমবার, ৩০ অগাস্ট ২০২১

গুরুদাসপুর (নাটোর) প্রতিনিধি.

 নাটোরের গুরুদাসপুরে পাগল খেতাব দিয়ে লিটন (২৮) নামের এক যুবককে বেধরক পিটিয়ে যখম করা হয়েছে। গুরুত্বর আহত ওই যুবককে গুরুদাসপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। সোমবার সকাল ৯ টার দিকে উপজেলার বামনকোলা গ্রামে ওই ঘটনা ঘটেছে।
এঘটনায় যুবকের মা বেবি বেগম বাদি হয়ে প্রতিবেশি চারজনকে অভিযুক্ত করে গুরুদাসপুর থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।
ওই যুবকের মা বেবি বেগম অভিযোগ করেন, তার ছেলে কথা বেশি বললেও পাগল নয়। অথচ পাগল খেতাব দিয়ে এলোপাথারিভাবে পিটিয়ে যখম করা হয়েছে। এসময় লিটনের কাছ থেকে মোবাইল ফোন, এটিএম কার্ড, মোটরসাইকেলের চাবি ছিনিয়ে নেওয়া হয়েছে। তিনি এই ঘটনার বিচার দাবি করেন।

তিনি বলেন, প্রতিবেশি আব্দুস সামাদ সরকারের সাথে জমি নিয়ে বিরোধ চলছিল। বিরোধের সূত্র ধরে এরআগেও বেশ কয়েকবার লিটনকে মারপিট করা হয়। প্রতিবাদ করতে গেলে লিটনকে পাগল আখ্যা দেওয়া হয়। সবশেষ জমি মাপযোগের জন্য সোমবার চাচা আব্দুস সামাদের কাছে যান। এসময় ক্ষিপ্ত হয়ে আব্দুস সামাদ ও তার সন্তানেরা লিটনকে বেদরক পিটিয় যখম করেন।
গুরুদাসপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. আব্দুর রাজ্জাক বলেন, এঘটনায় অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে।