শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১১ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

ছিনতাই-চাঁদাবাজির দায়ে বরখাস্ত আরএমপির ৬ পুলিশ

  • Reporter Name
  • Update Time : ০৬:০৫:৩৯ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১
  • ২৫ Time View

 বিশেষ প্রতিবেদক, রাজশাহী:
দুই নারীকে মাদক মামলায় ফাঁসানোর ভয় দেখিয়ে এক লাখ টাকা চাঁদা আদায় এবং নগদ সাড়ে চার হাজার টাকা ছিনতাইয়ের অভিযোগে রাজশাহী মোট্রোপলিটন পুলিশের (আরএমপি) ৬ সদস্যকে বরখাস্ত করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (২৩ সেপ্টেম্বর) রাতে আরএমপি কমিশনার আবু কালাম সিদ্দিকের এক আদেশে তাদের বরখাস্ত করা হয়।

বরখাস্তকৃতরা হলেন- আরএমপির বোয়ালিয়া মডেল থানার শিরোইল বাস টার্মিনাল পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এটিএসআই নাসির হোসেন, এএসআই মো. সেলিম, কনস্টেবল মো. শাহজাদা, সারোয়ার হোসেন, রিপন আলী ও শংকর চন্দ্র।

এ বিষয়ে আরএমপির মুখপাত্র ও অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার রুহুল কুদ্দুস বলেন, ৬ পুলিশ সদস্যকে সাময়িক বরখাস্ত করে পুলিশ লাইনে সংযুক্ত করা হয়েছে। এ ঘটনায় বিভাগীয় তদন্ত হবে।

এর আগে ছিনতাই ও চাঁদাবাজির অভিযোগ এনে ভুক্তভোগী দুই নারী বোয়ালিয়া মডেল থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেন এবং পুলিশ হেডকোয়ার্টারের হটলাইন নম্বরে বিষয়টি জানান তার স্বজনরা। এরপরই পুলিশ হেডকোয়ার্টার থেকে আরএমপি কমিশনারকে ব্যবস্থা গ্রহণ করতে নির্দেশ দেয়া হয়।

অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার সকালে নারায়ণগঞ্জ ও কুমিল্লা থেকে বাসযোগে দুই নারী রাজশাহীতে তাদের এক আত্মীয়র বাসায় বেড়াতে আসেন। তারা শিরোইল বাস টার্মিনালে নামার পর পরই এটিএসআই নাসিরসহ পুলিশ বক্সের সদস্যরা তাদের আটক করেন।
এরপর ওই দুই নারীকে ইয়াবাসহ গ্রেপ্তার দেখানোর হুমকি দেন তারা। এসময় তারা ভুক্তভোগীদের কাছে এক লাখ টাকা চাঁদা দাবি করেন। বাধ্য হয়ে ওই দুই নারী তাদের পরিবারকে বিষয়টি জানান। এরপর পরিবারের সদস্যরা বিকাশের মাধ্যমে এক লাখ টাকা দেন পুলিশকে। এছাড়া ছিনিয়ে নেয়া হয় তাদের দুইজনের কাছে থাকা নগদ সাড়ে চার হাজার টাকা।

Tag :
Popular Post

ছিনতাই-চাঁদাবাজির দায়ে বরখাস্ত আরএমপির ৬ পুলিশ

Update Time : ০৬:০৫:৩৯ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১

 বিশেষ প্রতিবেদক, রাজশাহী:
দুই নারীকে মাদক মামলায় ফাঁসানোর ভয় দেখিয়ে এক লাখ টাকা চাঁদা আদায় এবং নগদ সাড়ে চার হাজার টাকা ছিনতাইয়ের অভিযোগে রাজশাহী মোট্রোপলিটন পুলিশের (আরএমপি) ৬ সদস্যকে বরখাস্ত করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (২৩ সেপ্টেম্বর) রাতে আরএমপি কমিশনার আবু কালাম সিদ্দিকের এক আদেশে তাদের বরখাস্ত করা হয়।

বরখাস্তকৃতরা হলেন- আরএমপির বোয়ালিয়া মডেল থানার শিরোইল বাস টার্মিনাল পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এটিএসআই নাসির হোসেন, এএসআই মো. সেলিম, কনস্টেবল মো. শাহজাদা, সারোয়ার হোসেন, রিপন আলী ও শংকর চন্দ্র।

এ বিষয়ে আরএমপির মুখপাত্র ও অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার রুহুল কুদ্দুস বলেন, ৬ পুলিশ সদস্যকে সাময়িক বরখাস্ত করে পুলিশ লাইনে সংযুক্ত করা হয়েছে। এ ঘটনায় বিভাগীয় তদন্ত হবে।

এর আগে ছিনতাই ও চাঁদাবাজির অভিযোগ এনে ভুক্তভোগী দুই নারী বোয়ালিয়া মডেল থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেন এবং পুলিশ হেডকোয়ার্টারের হটলাইন নম্বরে বিষয়টি জানান তার স্বজনরা। এরপরই পুলিশ হেডকোয়ার্টার থেকে আরএমপি কমিশনারকে ব্যবস্থা গ্রহণ করতে নির্দেশ দেয়া হয়।

অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার সকালে নারায়ণগঞ্জ ও কুমিল্লা থেকে বাসযোগে দুই নারী রাজশাহীতে তাদের এক আত্মীয়র বাসায় বেড়াতে আসেন। তারা শিরোইল বাস টার্মিনালে নামার পর পরই এটিএসআই নাসিরসহ পুলিশ বক্সের সদস্যরা তাদের আটক করেন।
এরপর ওই দুই নারীকে ইয়াবাসহ গ্রেপ্তার দেখানোর হুমকি দেন তারা। এসময় তারা ভুক্তভোগীদের কাছে এক লাখ টাকা চাঁদা দাবি করেন। বাধ্য হয়ে ওই দুই নারী তাদের পরিবারকে বিষয়টি জানান। এরপর পরিবারের সদস্যরা বিকাশের মাধ্যমে এক লাখ টাকা দেন পুলিশকে। এছাড়া ছিনিয়ে নেয়া হয় তাদের দুইজনের কাছে থাকা নগদ সাড়ে চার হাজার টাকা।