সোমবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৩ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

গুরুদাসপুরে ৭ লাখ মিটার অবৈধ কারেন্ট জাল পুড়িয়ে ধ্বংস

  • Reporter Name
  • Update Time : ০৮:৫৪:২৪ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১
  • ২৭ Time View

গুরুদাসপুর (নাটোর) প্রতিনিধি.
গুরুদাসপুরে ৭ লাখ মিটার অবৈধ কারেন্ট জাল পুড়িয়ে ধ্বংস করা হয়েছে। মঙ্গলবার সন্ধায় চাঁচকৈড় বাজার এলাকার নন্দকুঁজা নদীর তীরে ওই জাল পোড়ানো হয়। এরআগে দুপুর থেকে র‌্যাব-৫ এর একটি দল পৌর সদরের চাঁচকৈড় বাজারে অভিযান শুরু করে।


র‌্যাব বলছে, চাঁচকৈড় বাজারের কিছু অসাধু ব্যবসায়ী অবৈধ কারেন্ট জাল বিক্রি করছেন। ওই অভিযোগের প্রেক্ষিতে বাজারের কয়েকটি গোডাউন তল্লাসী করে র‌্যাব। এরপর ব্যবসায়ী আব্দুর রউফ (৫৭) ও মো. শাহিনের (৩৮) একটি গোডাউন থেকে ওই ৭ লাখ মিটার অবৈধ কারেন্ট জাল জব্দ করা হয়। পরে জব্দকৃত জাল নন্দকুঁজা নদীর তীরে পুড়িয়ে ধ্বংস করা হয়। ওই কারেন্ট জালের বাজার মূল্য সাড়ে ১০ লাখ টাকা।
এসময় কারেন্ট জাল ব্যবসায়ী আব্দুর রউফ (৫৭) ও মো. শাহিনকে গ্রেপ্তার করা হয়। পরে মঙ্গলবার রাত আটটার দিকে সহকারি কমিশনার (ভূমি) আবু রাসেলের ভ্রাম্যমান আদালতে তাদের এক বছর করে কাড়াদÐ প্রদান করা হয়।
ওই অভিযানে ছিলেন, র‌্যাবের কোম্পানি কমান্ডার মেজর মো. সানরিয়া চৌধুরী, নাটোরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. ফরহাদ হোসেন প্রমূখ।
একই সময় র‌্যাবের পৃথক এক অভিযানে চাঁচকৈড় ভূয়া চিকিৎসক এ এস আজাদকে (৬২) ভ্রাম্যমান আদালতে ১০ হাজার টাকা জরিমানা ও ৬ মাসের কাড়াদÐ প্রদান করা হয়।

Tag :
Popular Post

গুরুদাসপুরে ৭ লাখ মিটার অবৈধ কারেন্ট জাল পুড়িয়ে ধ্বংস

Update Time : ০৮:৫৪:২৪ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১

গুরুদাসপুর (নাটোর) প্রতিনিধি.
গুরুদাসপুরে ৭ লাখ মিটার অবৈধ কারেন্ট জাল পুড়িয়ে ধ্বংস করা হয়েছে। মঙ্গলবার সন্ধায় চাঁচকৈড় বাজার এলাকার নন্দকুঁজা নদীর তীরে ওই জাল পোড়ানো হয়। এরআগে দুপুর থেকে র‌্যাব-৫ এর একটি দল পৌর সদরের চাঁচকৈড় বাজারে অভিযান শুরু করে।


র‌্যাব বলছে, চাঁচকৈড় বাজারের কিছু অসাধু ব্যবসায়ী অবৈধ কারেন্ট জাল বিক্রি করছেন। ওই অভিযোগের প্রেক্ষিতে বাজারের কয়েকটি গোডাউন তল্লাসী করে র‌্যাব। এরপর ব্যবসায়ী আব্দুর রউফ (৫৭) ও মো. শাহিনের (৩৮) একটি গোডাউন থেকে ওই ৭ লাখ মিটার অবৈধ কারেন্ট জাল জব্দ করা হয়। পরে জব্দকৃত জাল নন্দকুঁজা নদীর তীরে পুড়িয়ে ধ্বংস করা হয়। ওই কারেন্ট জালের বাজার মূল্য সাড়ে ১০ লাখ টাকা।
এসময় কারেন্ট জাল ব্যবসায়ী আব্দুর রউফ (৫৭) ও মো. শাহিনকে গ্রেপ্তার করা হয়। পরে মঙ্গলবার রাত আটটার দিকে সহকারি কমিশনার (ভূমি) আবু রাসেলের ভ্রাম্যমান আদালতে তাদের এক বছর করে কাড়াদÐ প্রদান করা হয়।
ওই অভিযানে ছিলেন, র‌্যাবের কোম্পানি কমান্ডার মেজর মো. সানরিয়া চৌধুরী, নাটোরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. ফরহাদ হোসেন প্রমূখ।
একই সময় র‌্যাবের পৃথক এক অভিযানে চাঁচকৈড় ভূয়া চিকিৎসক এ এস আজাদকে (৬২) ভ্রাম্যমান আদালতে ১০ হাজার টাকা জরিমানা ও ৬ মাসের কাড়াদÐ প্রদান করা হয়।