বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৫ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

ভুয়া জন্মদিন: খালেদার মামলার অভিযোগ গঠন ১৪ অক্টোবর

  • Reporter Name
  • Update Time : ০৭:১১:২৮ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১ অক্টোবর ২০২১
  • ২৯ Time View

বিশেষ প্রতিবেদক.

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। ফাইল ছবি
মিথ্যা তথ্যের ভিত্তিতে ভুয়া জন্মদিন পালন ও যুদ্ধাপরাধীদের মদদ দিয়ে মুক্তিযুদ্ধকে কলঙ্কিত করার অভিযোগে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে পৃথক দুটি মামলার অভিযোগ গঠনের শুনানি আবারও পিছিয়ে ১৪ অক্টোবর দিন ধার্য করেছেন আদালত।

বৃহস্পতিবার (৩০ সেপ্টম্বর) ঢাকার অতিরিক্ত চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আসাদুজ্জামান নুর এই নতুন দিন ধার্য করেন। এদিন অভিযোগ গঠনের দিন ধার্য থাকলেও খালেদা জিয়া অসুস্থ থাকায় আদালতে উপস্থিত হতে পারেনি। তাই তার আইনজীবী মাসুম আহমেদ তালুকদার পুনরায় সয়ম চেয়ে আদালতে আবেদন করেন। পরে বিচারক এ আবেদনটি মঞ্জুর করে অভিযোগ গঠন শুনানির নতুন দিন ধার্য করেন।

মিথ্যা তথ্য দিয়ে ভুয়া জন্মদিন পালনের অভিযোগে ২০১৬ সালের ৩০ আগস্ট ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক গাজী জহিরুল ইসলাম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে ঢাকার বিচারিক আদালতে একটি মামলা দায়ের করেন। অভিযোগে বলা হয়, বিভিন্ন মাধ্যমে খালেদার পাঁচটি জন্মদিন পাওয়া গেলেও কোথাও ১৫ আগস্ট জন্মদিন পাওয়া যায়নি। এ অবস্থায় তিনি পাঁচটি জন্মদিনের একটিও পালন না করে ১৯৯৬ সাল থেকে ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের মৃত্যুবার্ষিকীর দিন জাতীয় শোক দিবসে আনন্দ-উৎসব করে জন্মদিন পালন করে আসছেন।

এছাড়া যুদ্ধাপরাধীদের মদদ দিয়ে মুক্তিযুদ্ধকে কলঙ্কিত করার অভিযোগে খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে ২০১৬ সালের ৩ নভেম্বর আদালতে বাদী হয়ে আরেকটি মামলা দায়ের করেন বাংলাদেশ জননেত্রী পরিষদের সভাপতি এ বি সিদ্দিকী। পরে এই দুই মামলা আমলে নিয়ে খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন আদালত। তবে এই দুই মামলায় বর্তমানে তিনি জামিনে রয়েছেন।

Tag :
Popular Post

ভুয়া জন্মদিন: খালেদার মামলার অভিযোগ গঠন ১৪ অক্টোবর

Update Time : ০৭:১১:২৮ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১ অক্টোবর ২০২১

বিশেষ প্রতিবেদক.

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। ফাইল ছবি
মিথ্যা তথ্যের ভিত্তিতে ভুয়া জন্মদিন পালন ও যুদ্ধাপরাধীদের মদদ দিয়ে মুক্তিযুদ্ধকে কলঙ্কিত করার অভিযোগে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে পৃথক দুটি মামলার অভিযোগ গঠনের শুনানি আবারও পিছিয়ে ১৪ অক্টোবর দিন ধার্য করেছেন আদালত।

বৃহস্পতিবার (৩০ সেপ্টম্বর) ঢাকার অতিরিক্ত চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আসাদুজ্জামান নুর এই নতুন দিন ধার্য করেন। এদিন অভিযোগ গঠনের দিন ধার্য থাকলেও খালেদা জিয়া অসুস্থ থাকায় আদালতে উপস্থিত হতে পারেনি। তাই তার আইনজীবী মাসুম আহমেদ তালুকদার পুনরায় সয়ম চেয়ে আদালতে আবেদন করেন। পরে বিচারক এ আবেদনটি মঞ্জুর করে অভিযোগ গঠন শুনানির নতুন দিন ধার্য করেন।

মিথ্যা তথ্য দিয়ে ভুয়া জন্মদিন পালনের অভিযোগে ২০১৬ সালের ৩০ আগস্ট ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক গাজী জহিরুল ইসলাম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে ঢাকার বিচারিক আদালতে একটি মামলা দায়ের করেন। অভিযোগে বলা হয়, বিভিন্ন মাধ্যমে খালেদার পাঁচটি জন্মদিন পাওয়া গেলেও কোথাও ১৫ আগস্ট জন্মদিন পাওয়া যায়নি। এ অবস্থায় তিনি পাঁচটি জন্মদিনের একটিও পালন না করে ১৯৯৬ সাল থেকে ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের মৃত্যুবার্ষিকীর দিন জাতীয় শোক দিবসে আনন্দ-উৎসব করে জন্মদিন পালন করে আসছেন।

এছাড়া যুদ্ধাপরাধীদের মদদ দিয়ে মুক্তিযুদ্ধকে কলঙ্কিত করার অভিযোগে খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে ২০১৬ সালের ৩ নভেম্বর আদালতে বাদী হয়ে আরেকটি মামলা দায়ের করেন বাংলাদেশ জননেত্রী পরিষদের সভাপতি এ বি সিদ্দিকী। পরে এই দুই মামলা আমলে নিয়ে খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন আদালত। তবে এই দুই মামলায় বর্তমানে তিনি জামিনে রয়েছেন।