সোমবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৩ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

মোহনপুরে কলেজছাত্রী ধর্ষণ, ৯৯৯ কলে যুবক গ্রেপ্তার

  • Reporter Name
  • Update Time : ০৩:৩৯:০৮ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৪ অক্টোবর ২০২১
  • ৪৩ Time View

মোহনপুর (রাজশাহী) প্রতিনিধি:
রাজশাহীর মোহনপুরে বিয়ের প্রলোভনে ইন্টারমিডিয়েট পড়ুয়া কলেজ ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে জাহিদ হাসান (২০) নামে এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। পুলিশের জরুরী হটলাইন সেবা নম্বর ৯৯৯-এ কল পেয়ে মঙ্গলবার (১২ অক্টোবর) বিকেল ৫টার দিকে উপজেলার মৌগাছি ইউনিয়নের মৌপাড়া গ্রাম থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।
বুধবার (১৩ অক্টোবর) দুপুরে তাকে আদালতের মাধ্যমে পাঠানো হয়েছে কারাগারে। গ্রেপ্তারকৃত জাহিদ জেলার পবা উপজেলার তেকাটাপাড়া এলাকার হেকমত আলীর ছেলে।

স্থানীয়রা জানান, এলাকার এক কৃষকের কলেজপড়ুয়া মেয়ের সঙ্গে প্রেমের সঙ্গে গড়ে ওঠে জাহিদের। গত সোমবার বিকেলে ওই মেয়ের পরিবারের সদস্যরা স্থানীয় ক্ষেতে ফসল তুলতে যায়। এসময় জাহিদ মেয়ের বাসায় আসে এবং বাড়ির পাশে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ করে। পরদিন গত মঙ্গলবারও আসে মেয়ের বাসায়। এবার তার শয়ণকক্ষেই জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। এসময় এলাকার লোকজন বিষয়টি বুঝতে পেরে আটক করে তাকে। এরইমধ্যে খবর পায় জাহিদের স্বজনরা। তারা ৯৯৯-এ কল করে এবং পুলিশ তৎক্ষনাৎ ঘটনাস্থলে গিয়ে মেয়েকে উদ্ধার ও ছেলেকে হেফাজতে নেয়।

এ বিষয়ে মোহনপুর থানার ওসি তৌহিদুল ইসলাম ভোরের কাগজকে বলেন, প্রেমের সম্পর্ক থেকেই এ ঘটনা ঘটেছে। থানায় ভুক্তভোগী কলেজ ছাত্রীর দায়েরকৃত ধর্ষণ মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে অভিযুক্তকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

Tag :
Popular Post

মোহনপুরে কলেজছাত্রী ধর্ষণ, ৯৯৯ কলে যুবক গ্রেপ্তার

Update Time : ০৩:৩৯:০৮ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৪ অক্টোবর ২০২১

মোহনপুর (রাজশাহী) প্রতিনিধি:
রাজশাহীর মোহনপুরে বিয়ের প্রলোভনে ইন্টারমিডিয়েট পড়ুয়া কলেজ ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে জাহিদ হাসান (২০) নামে এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। পুলিশের জরুরী হটলাইন সেবা নম্বর ৯৯৯-এ কল পেয়ে মঙ্গলবার (১২ অক্টোবর) বিকেল ৫টার দিকে উপজেলার মৌগাছি ইউনিয়নের মৌপাড়া গ্রাম থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।
বুধবার (১৩ অক্টোবর) দুপুরে তাকে আদালতের মাধ্যমে পাঠানো হয়েছে কারাগারে। গ্রেপ্তারকৃত জাহিদ জেলার পবা উপজেলার তেকাটাপাড়া এলাকার হেকমত আলীর ছেলে।

স্থানীয়রা জানান, এলাকার এক কৃষকের কলেজপড়ুয়া মেয়ের সঙ্গে প্রেমের সঙ্গে গড়ে ওঠে জাহিদের। গত সোমবার বিকেলে ওই মেয়ের পরিবারের সদস্যরা স্থানীয় ক্ষেতে ফসল তুলতে যায়। এসময় জাহিদ মেয়ের বাসায় আসে এবং বাড়ির পাশে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ করে। পরদিন গত মঙ্গলবারও আসে মেয়ের বাসায়। এবার তার শয়ণকক্ষেই জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। এসময় এলাকার লোকজন বিষয়টি বুঝতে পেরে আটক করে তাকে। এরইমধ্যে খবর পায় জাহিদের স্বজনরা। তারা ৯৯৯-এ কল করে এবং পুলিশ তৎক্ষনাৎ ঘটনাস্থলে গিয়ে মেয়েকে উদ্ধার ও ছেলেকে হেফাজতে নেয়।

এ বিষয়ে মোহনপুর থানার ওসি তৌহিদুল ইসলাম ভোরের কাগজকে বলেন, প্রেমের সম্পর্ক থেকেই এ ঘটনা ঘটেছে। থানায় ভুক্তভোগী কলেজ ছাত্রীর দায়েরকৃত ধর্ষণ মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে অভিযুক্তকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।