বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৬ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

শিবগঞ্জে পূজামন্ডপের প্যান্ডেল ভাঙচুর, আটক ১১

  • Reporter Name
  • Update Time : ০৩:২৬:০৭ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৪ অক্টোবর ২০২১
  • ২৬ Time View

শিবগঞ্জ (চাঁপাইনবাবগঞ্জ) প্রতিনিধি:
চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলার মনাকষা ইউনিয়নের খড়িয়াল মোড় কামারপাড়ায় পূজামন্ডপে হামলার ঘটনা ঘটেছে। বুধবার রাতে একদল দুর্বৃত্ত হঠাৎ করে হামলা চালিয়ে মন্ডপের বাইরের প্যান্ডেল ভাঙচুর ও ইটের আঘাতে প্রতিমার মুখের সামান্য অংশ ক্ষতিগ্রস্থ করে। এদিকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ১১ জনকে থানায় আনা হয়েছে। শিবগঞ্জ থানার ওসি ফরিদ হোসেন স্থানীয়দের বরাত দিয়ে জানান, রাত ৯টার দিকে শতাধিক স্থানীয় যুবক হঠাৎ করে মন্দিরে হামলা করে। প্রথমে তারা মন্দিরের বাইরের প্যান্ডেল ভাঙচুর করার পর প্রতিমা ভাঙচুরের চেষ্টা চালায়। কিন্তু লোকজন থাকায় তা করতে পারেনি। তবে প্রতিমাকে লক্ষ্য করে ইট মারলে প্রতিমার মুখের একটি অংশ ক্ষতিগ্রস্থ হয়। মূলমন্ডপের তেমন ক্ষতি হয়নি। হামলার পরপরই দুর্বৃত্তরা পালিয়ে যায়। কুমিল্লার ঘটনার জের ধরে এ ঘটনা ঘটে থাকতে পারে বলে মন্তব্য করেন ওসি ফরিদ হোসেন। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ১১ জনকে থানায় আনা হয়েছে। ওই এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাকিব আল-রাব্বি জানান, ভেঙ্গে দেয়া মূল গেট ও প্রতিমা মেরামত করা হয়েছে। পরিস্থিতি এখন শান্ত রয়েছে। সনাতন সম্প্রদায় যেন সঠিকভাবে তাদের পূজা পালন করতে পারে সেজন্য সব ধরনের নিরাপত্তার ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে।

Tag :
Popular Post

শিবগঞ্জে পূজামন্ডপের প্যান্ডেল ভাঙচুর, আটক ১১

Update Time : ০৩:২৬:০৭ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৪ অক্টোবর ২০২১

শিবগঞ্জ (চাঁপাইনবাবগঞ্জ) প্রতিনিধি:
চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলার মনাকষা ইউনিয়নের খড়িয়াল মোড় কামারপাড়ায় পূজামন্ডপে হামলার ঘটনা ঘটেছে। বুধবার রাতে একদল দুর্বৃত্ত হঠাৎ করে হামলা চালিয়ে মন্ডপের বাইরের প্যান্ডেল ভাঙচুর ও ইটের আঘাতে প্রতিমার মুখের সামান্য অংশ ক্ষতিগ্রস্থ করে। এদিকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ১১ জনকে থানায় আনা হয়েছে। শিবগঞ্জ থানার ওসি ফরিদ হোসেন স্থানীয়দের বরাত দিয়ে জানান, রাত ৯টার দিকে শতাধিক স্থানীয় যুবক হঠাৎ করে মন্দিরে হামলা করে। প্রথমে তারা মন্দিরের বাইরের প্যান্ডেল ভাঙচুর করার পর প্রতিমা ভাঙচুরের চেষ্টা চালায়। কিন্তু লোকজন থাকায় তা করতে পারেনি। তবে প্রতিমাকে লক্ষ্য করে ইট মারলে প্রতিমার মুখের একটি অংশ ক্ষতিগ্রস্থ হয়। মূলমন্ডপের তেমন ক্ষতি হয়নি। হামলার পরপরই দুর্বৃত্তরা পালিয়ে যায়। কুমিল্লার ঘটনার জের ধরে এ ঘটনা ঘটে থাকতে পারে বলে মন্তব্য করেন ওসি ফরিদ হোসেন। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ১১ জনকে থানায় আনা হয়েছে। ওই এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাকিব আল-রাব্বি জানান, ভেঙ্গে দেয়া মূল গেট ও প্রতিমা মেরামত করা হয়েছে। পরিস্থিতি এখন শান্ত রয়েছে। সনাতন সম্প্রদায় যেন সঠিকভাবে তাদের পূজা পালন করতে পারে সেজন্য সব ধরনের নিরাপত্তার ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে।