গুরুদাসপুরে বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করায় প্রকৌশলীসহ চারজনকে পিটিয়ে জখম

৪ মাসের বিদ্যুত বিল বাঁকি, লাইন কাটতে গেলে পিটিয়ে জখম

মোঃ মাজেম আলীমোঃ মাজেম আলী
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৯:১০ PM, ১৬ জুন ২০২২

প্রতিনিধি গুরুদাসপুর,নাটোর. নাটোরের গুরুদাসপুরে বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছন্ন করতে গিয়ে নাটোর পল্লীবিদ্যুৎ সমিতি-২ (গুরুদাসপুর)এর সহকারী প্রকৌশলীসহ ৪জন কর্মীকে পিটিয়ে জখম করার অভিযোগ উঠেছে। বৃহষ্পতিবার দুপুরে উপজেলার খুবজীপুর ইউনিয়নের শ্রীপুর গ্রামের গ্রাহক মামুন সরদারের বাড়িতে এঘটনা ঘটেছে।

আহতরা হলেন সহকারী প্রকৌশলী মশিউর রহমান (৪৮) ইকবাল হোসেন (৪৫) ফরিদুল ইসলাম (২৮) ও আব্দুল আজিজ (২৪)কে গুরুদাসপুর উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। এঁদের মধ্যে আজিজের অবস্থার অবনতি হওয়ায় রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

এঘটনায় বিদ্যুৎ গ্রাহক মামুন সরদার তাঁর বাবা বাহার সরদার, চাচা তাহাদ সরদার মামুনের বোন মোছা. বন্যা বেগম ও মা আনজুয়ারা বেগমকে আসামী করে সরকারি কাজে বাধা দেওয়ার অভিযোগ এনে গুরুদাসপুর থানায় মামলা হয়েছে। ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার (ডিজিএম) মো. আব্দুর রশিদ বাদী হয়ে মামলাটি দায়ের করেন।

আহত কর্মীরা জানান গ্রাহক মামুন সরদারের চার মাসের বিদ্যুৎ বিল বকেয়া রয়েছে। বিল পরিশোধের জন্য কয়েক দফা বলা হলেও বিল পরিশোধ করেননি তিনি। জুনক্লোজিংকে ঘিরে বিশেষ অভিযানে তাঁর সংযোগটি বিচ্ছিন্ন করা হয়। এসময় মামুনের পরিবারের লোকজন কাঠের বাটাম দিয়ে পিটিয়ে এবং ইটপাটকেল ছুঁড়ে তাঁদের মারাত্মক আহত করে। পরে থানা থেকে পুলিশ গিয়ে তাঁদের উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করে। অভিযুক্তরা ঘটনার পর থেকে বাড়ি ছাড়া থাকায় তাঁদের বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি। গুরুদাসপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আব্দুল মতিন তথ্যটি নিশ্চিত করে বলেন আসামীদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

আপনার মতামত লিখুন :