নুপুর শর্মাকে নিয়ে ভারতের সুপ্রিম কোর্টের কড়া সমালোচনা

মোঃ মাজেম আলীমোঃ মাজেম আলী
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৬:৩৭ PM, ০১ জুলাই ২০২২

অনলাইন ডেস্ক. ভারতের সুপ্রিম কোর্ট শুক্রবার নুপুর শর্মার কড়া সমালোচনা করেছেন। নুপুর শর্মা ভারতের ক্ষমতাসীন দল বিজেপির মুখপাত্র ছিলেন। মহানবীকে নিয়ে কুরুচিকর মন্তব্য করার কারণে তাকে বিজেপি থেকে বহিস্কার করা হয়।

শুক্রবার দেশটির সুপ্রিম কোর্ট বলেছেন, মহানবী হযরত মোহাম্মদ (সাঃ)-কে নিয়ে মন্তব্য করে সারা দেশে উত্তেজনা উসকে দেওয়ার জন্য নুপুর শর্মার ‘দেশবাসীর কাছে ক্ষমা চাওয়া উচিত।’ এসব কিছুর জন্য নুপুর শর্মা দায়ী উল্লেখ করে আদালত আরও বলেছেন, দেশে বর্তমানে যা হচ্ছে তার জন্য এই নারী একমাত্র দায়ী।

ভারতে একটি টিভি অনুষ্ঠানে মহানবীকে নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করেন নুপুর শর্মা। এরপর দেশটিতে এর প্রতিবাদে আন্দোলন শুরু হয়। তাছাড়া মধ্যপ্রাচ্যের বিভিন্ন দেশ ভারতের রাষ্ট্রদূতদের তলব করে।

এছাড়া মঙ্গলবার উদয়পুরে নুপুর শর্মাকে সমর্থন জানানোয় একজন গরীব দর্জিকে হত্যা করে দুইজন মুসলিম যুবক।

নুপুর শর্মাকে নিয়ে ভারতের সুপ্রিম কোর্টের বিচারক সুরিয়া কান্ত বলেন, আমরা বিতর্কটি দেখেছি কিভাবে তাকে প্ররোচিত করা হয়েছে। কিন্তু যেভাবে তিনি এগুলো বলেছেন এবং পরবর্তীতে বলেছেন তিনি একজন আইনজীবী এটি লজ্জার। তার পুরো দেশের কাছে ক্ষমা চাওয়া উচিত।

এদিকে নুপুর শর্মা সুপ্রিম কোর্টের কাছে একটি পিটিশন দায়ের করেন। নিজের নাম এনভি শর্মা উল্লেখ করে পিটিশনে তিনি আবেদন জানান, নিরাপত্তার জন্য তার বিরুদ্ধে হওয়া সকল এফআইআর যেন দিল্লিতে স্থানান্তর করা হয়। তাছাড়া পিটিশনে তিনি বলেছেন, তার বক্তব্য জোড়াতালি দেওয়া হয়েছে।

তবে নুপুর শর্মার পিটিশন খারিজ করে দেওয়া হয়। উল্টো সুপ্রিম কোর্টের পক্ষ থেকে বলা হয়, একটি দলের মুখপাত্র হয়ে তিনি কি মনে করেছিলেন যে যা খুশি তাই বলতে পারবেন? তবে নুপুর শর্মার আইনজীবী দাবি করেছেন, তিনি সাংবাদিকের প্রশ্নের উত্তর দিচ্ছিলেন।

আপনার মতামত লিখুন :