সিংড়ায় মসজিদের মধ্যে মুয়াজ্জিনকে মারধর, গ্রেফতার-২

মোঃ মাজেম আলীমোঃ মাজেম আলী
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৯:১৪ PM, ০৩ জুলাই ২০২২

সিংড়া (নাটোর) প্রতিনিধি.নাটোরের সিংড়া উপজেলার চৌগ্রাম কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের ভেতরে মুয়াজ্জিন ও তার ভাইকে মারধরের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় চৌগ্রাম ইউনিয়ন মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি হাসিনা বেগমের ছেলে ও স্বামীকে আটক করেছে থানা পুলিশ।

রোববার পৃথক জায়গা থেকে তাদের আটক করে জেলহাজতে প্রেরণ করেছে পুলিশ। তারা হলেন- আওয়ামী লীগ নেত্রীর ছেলে হাবিব আরমান ও স্বামী আব্বাস আলী।

থানা পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, শনিবার (২ জুলাই) বিকাল সাড়ে ৫টায় তুচ্ছ ঘটনা নিয়ে চৌগ্রাম কেন্দ্রীয় মসজিদের ভেতরে নামাজের সময় মুয়াজ্জিন নিজাম উদ্দিনকে (৭৫) মারধর শুরু করেন ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ নেত্রীর ছেলে হাবিব আরমান। এ সময় তাকে উদ্ধার করতে গেলে তার বড়ভাই আকবর আলীকেও বেধড়ক পিটুনি দেয় আওয়ামী লীগ নেত্রীর ছেলে ও স্বজনরা।

পরে মুসল্লিরা তাদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। আহতদের মধ্যে মুয়াজ্জিন নিজাম উদ্দিনকে উপজেলা হাসপাতালে ও তার বড়ভাই আকবর আলীর অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

চৌগ্রাম ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জাহেদুল ইসলাম ভোলা বলেন, মসজিদের ভেতরে ঢুকে মুয়াজ্জিন ও মুসল্লিকে মারধর একটা অমানবিক ঘটনা। বিষয়টি নিয়ে মুসল্লিদের মাঝে চরম ক্ষোভ বিরাজ করছে। তিনি অভিযুক্তদের বিচার দাবি করেন।

সিংড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা নুর-এ-আলম সিদ্দিকী বলেন, এ ঘটনায় তিনজনকে আসামি করে থানায় একটি মামলা হয়েছে। আর এখন পর্যন্ত দুইজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

আপনার মতামত লিখুন :