একজন প্রকৃত দেশপ্রেমিক সাংবাদিকের কাজ

মোঃ মাজেম আলীমোঃ মাজেম আলী
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৬:০৬ PM, ১৮ জুলাই ২০২২

 
বনলতা ডেস্ক.
 
মানুষ যেই পেশায় থাকুন না কেন, তার নিজের সাফল্যের সঙ্গে -সঙ্গে কাজ করার জন্য তার কতগুলো গুণ থাকা খুবই আবশ্যক। সাংবাদিকের ক্ষেত্রে ও সেই একই কথা পযোজ্য, প্রভাত-আলোর পানে হাজারো নক্ষত্রের মতো। তবে অন্য যে কোন পেশার তুলনায় সাংবাদিকতার সাথে জড়িত লোকজনের জন্য একটু ভিন্নধর্মী গুণাবলীর প্রয়োজন হয়। সর্বপরি সাংবাদিকতার মত মহান কাজে দায়িত্ব নিয়ে সৎ,দক্ষ, আদর্শ,ও নির্ভীক,দুঃসাহসী হয়ে দেশের অপরাধ, শিক্ষাঙ্গন,কলকারখানা সহ দেশের উন্নতি,অগ্রগতির বাস্তব চিত্র তুলে ধরে ।
গণমানুষের কল্যাণে ক্রিয়াশীলতা হয়ে শত প্রতিবন্ধীকতা উপেক্ষা করে কাজ করে একমাত্র সাংবাদিকরাই। আমি সেই সাংবাদিক দের কথা বলছি জিবনের ঝুঁকি আছে জেনে ও মৃত্যু পথের যাত্রী হয়ে বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ সংগ্রহের জন্য শত আধারে পথ চলে। দেশের প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর ও দুর্গম এলাকার সংবাদ তুলে ধরে জানান দেয় সরকারি কর্মরত কর্মকর্তাদের কাছে। সাংবাদিকতায় প্রথম শ্রেণী ডিগ্রী নিয়েও অনেকে পরিপূর্ণ সাংবাদিক হতে পারেন না। আবার এর ঠিক বিপরীত হচ্ছে যেমন, অনেকে সাংবাদিকতায় একাডেমিক ডিগ্রী না নিয়েই বিরাট মাপের সাংবাদিক। সাংবাদিক হয়েছেন এমন নজির বহু রয়েছে।
একজন বিজ্ঞ সাংবাদিক বলেছেন, সাংবাদিকতায় সাফল্য অর্জন করতে হলে কাজের যোগ্যতার পাশাপাশি নজর রাখতে হবে। যেন তথ্যগত কোন ভুল না ঘটে। ভুল রিপোর্টিং ব্যক্তির বিশেষ অধিকার লঙ্ঘনের তুল্য বলে বিবেচিত হয়। সাংবাদিকতাঃ- মুক্তিযুদ্ধের চেতনা নিয়ে দেশ, মাটি ও মানুষের পক্ষে কথা বলতে বলতে হবে। সংবাদ সংগ্রহের কাজে নিয়োজিত কর্মী কে বলা হয় সাংবাদিক । সাংবাদিকের পেশা সাংবাদিকতা। পেশা হিসাবে সাংবাদিকতা খুবই সম্মানজনক একটি পেশা। এপেশায় সততা ও দায়িত্বশীলতা প্রথম ও প্রধান কথা। অসততা দায়িত্বহীনতা এ পেশার জন্য যেমন ক্ষতিকর তেমনি দেশও জাতির জন্যে ও তা ক্ষতিকর। একজন সাংবাদিক কে হতে অবশ্যই বুদ্ধি দীপ্ত। সংবাদ সূত্র বা সংবাদ বিষয়ে তার ভালো জ্ঞান -বুদ্ধি থাকতে হবে। সংবাদ সংগ্রহে ও তা প্রকাশের ক্ষেত্রে তাকে প্রাজ্ঞতার পরিচয় দিতে হবে। তাকে হতে হবে যথেষ্ট সাহসী এবং তার নার্ভ থাকবে যথেষ্ট মজবুত। প্রতিনিয়ত তাকে প্রতিকূল অবস্থার মধ্যে দিয়ে কাজ করতে হবে। সাংবাদিকতা করতে হলে জীবনে ঝুঁকি ও বিপদ একাধিক বার আসতে পারে,সাহসের সাথে তাকে তা মোকাবেলা করতে হবে।
যিনি সাংবাদিক হবেন, তিনি হবেন সব সময়ই সৌজন্যে বাদী বন্ধু ভাবপন্ন,তিনি হবেন শান্তশিষ্ট, ভদ্র। সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ কথা হলো, সাংবাদিকের কখনও খিটখিটে মেজাজ থাকতে নেই। তাহলে তার পক্ষে কাঙ্ক্ষিত কাজ উদ্ধার সম্ভব হবে না। তিনি অহংকারী অথবা গোমড়ামুখী হবেন না। তিনি সব সময়ই হবেন সহাস্যবদন। তিনি তার ব্যক্তিত্ব দ্বারা সবাই কে আকৃষ্ট করবেন। তিনি হবেন সহনশীল বিবেকবান। সাংবাদিকের থাকতে হবে তীব্র জ্ঞান -বুদ্ধি প্রখর থাকা টা সাংবাদিকের একটি বড় গুণ। সাংবাদিকের চোখ কান সব সময়ই খোলা রাখতে হবে। সাংবাদিক হবেন এক জন আদর্শ বাদী। সাংবাদিকে সাহিত্যে বোধ থাকতে হবে। সর্বোপরি সাংবাদিকের থাকাতে হবে নেতৃত্বদান করার ক্ষমতা।
তার জন্য চাই মানবিক চর্চার সংগঠন শক্তি! মানুষের কল্যাণের স্বার্থে সাংবাদিক কে সবার প্রথমে এগিয়ে আসতে হবে মনে রাখতে হবে একজন সাংবাদিক হচ্ছেন সমাজের আলো। সমাজ সেবাই তার মূল লক্ষ্য। ব্যক্তি মানুষের চেয়ে সমাজ মানুষ হয়ে গড়ে উঠতে পারা টা তার জন্য বড় কৃতিত্ব। সাংবাদিকের গুণাবলী,সাংবাদিকের শক্তিশালী অস্ত্র কলম।

আপনার মতামত লিখুন :