শনিবার, ০২ মার্চ ২০২৪, ১৯ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

বড়াইগ্রামের এক পৌরসভা ও দুই ইউপি নির্বাচনের প্রচারণা শুরু

  • Reporter Name
  • Update Time : ০৬:৪৮:১১ অপরাহ্ন, রবিবার, ১১ ডিসেম্বর ২০২২
  • ১০১ Time View

বড়াইগ্রাম প্রতিনিধি. নাটোরের বড়াইগ্রামের বনপাড়া পৌরসভা এবং মাঝগাঁও ও জোয়াড়ি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে ২৯ ডিসেম্বর। সীমানা সংক্রান্ত জটিলতার কারণে ওই পৌরসভা ও দুটি ইউনিয়ন পরিষদে নির্বাচন পিছেয়ে যায়। রবিবার জেলা নির্বাচন অফিস ও বড়াইগ্রাম উপজেলা নির্বাচন অফিস থেকে বৈধ প্রার্থীদের প্রতীক বরাদ্দ দেওয়া হয়।

প্রতীক পাওয়ার পরপরই ফেসবুকে সরব হয় প্রতীকসহ প্রার্থীদের দোয়া কামনা। অনেকেই আগে থেকেই পোস্টার ডিজাইন করে রাখায় তা পোস্ট করেন ফেসবুকে। দুপুর ২টা থেকে বিভিন্ন মহল্লায় প্রতীকসহ মাইকিং করতেও দেখা দেখা গেছে। প্রিন্টিং প্রেসগুলো হরদম শুরু করেছে পোস্টার ছাপানোর কাজ।

জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মুহাম্মদ আনোয়ারুল হক জানান, বনপাড়া পৌরসভার বৈধ প্রার্থীদের মাঝে প্রতীক বিতরণ করা হয়েছে। এই পৌরসভায় মেয়র পদে দুইজন প্রার্থী মনোনয়নপত্র দাখিল করলেও স্বতন্ত্র প্রার্থী জাকির হোসেন সরকারের প্রার্থিতা বাতিল করায় এখন শুধুমাত্র বর্তমান মেয়র আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী কেএম জাকির হোসেন একমাত্র প্রার্থী থাকলেন। তবে স্বতন্ত্র জাকির হোসেন সরকার হাইকোর্টে আপিল করেছেন বৈধতা পাওয়ার জন্য। যদি আদালত তার প্রার্থিতা বহাল রাখেন, তাহলে মেয়র পদে দুইজন প্রার্থী হবেন। এই পৌরসভায় সাধারণ কাউন্সিলর পদে ৩১ জন এবং সংরক্ষিত নারী আসনে ৭ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এর মধ্যে সংরক্ষিত পদে বর্তমান কাউন্সিলর শরীফুন্নেছা শিরিন বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হচ্ছেন।

অপরদিকে দুই ইউনিয়নের দায়িত্বপ্রাপ্ত রিটার্নিং অফিসার গুরুদাসপুর উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ফেরদৌস আলম জানান, জোয়াড়ি ইউনিয়ন পরিষদে চেয়ারম্যান পদে ৩ জন, সাধারণ সদস্য পদে ৪৪ জন এবং সংরক্ষিত নারী সদস্য ৯ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। মাঝগাঁও ইউনিয়ন পরিষদে চেয়ারম্যান পদে ৬ জন, সাধারণ সদস্য পদে ৪০ জন ও সংরক্ষিত নারী সদস্য ১০ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

Tag :
Popular Post

বড়াইগ্রামের এক পৌরসভা ও দুই ইউপি নির্বাচনের প্রচারণা শুরু

Update Time : ০৬:৪৮:১১ অপরাহ্ন, রবিবার, ১১ ডিসেম্বর ২০২২

বড়াইগ্রাম প্রতিনিধি. নাটোরের বড়াইগ্রামের বনপাড়া পৌরসভা এবং মাঝগাঁও ও জোয়াড়ি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে ২৯ ডিসেম্বর। সীমানা সংক্রান্ত জটিলতার কারণে ওই পৌরসভা ও দুটি ইউনিয়ন পরিষদে নির্বাচন পিছেয়ে যায়। রবিবার জেলা নির্বাচন অফিস ও বড়াইগ্রাম উপজেলা নির্বাচন অফিস থেকে বৈধ প্রার্থীদের প্রতীক বরাদ্দ দেওয়া হয়।

প্রতীক পাওয়ার পরপরই ফেসবুকে সরব হয় প্রতীকসহ প্রার্থীদের দোয়া কামনা। অনেকেই আগে থেকেই পোস্টার ডিজাইন করে রাখায় তা পোস্ট করেন ফেসবুকে। দুপুর ২টা থেকে বিভিন্ন মহল্লায় প্রতীকসহ মাইকিং করতেও দেখা দেখা গেছে। প্রিন্টিং প্রেসগুলো হরদম শুরু করেছে পোস্টার ছাপানোর কাজ।

জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মুহাম্মদ আনোয়ারুল হক জানান, বনপাড়া পৌরসভার বৈধ প্রার্থীদের মাঝে প্রতীক বিতরণ করা হয়েছে। এই পৌরসভায় মেয়র পদে দুইজন প্রার্থী মনোনয়নপত্র দাখিল করলেও স্বতন্ত্র প্রার্থী জাকির হোসেন সরকারের প্রার্থিতা বাতিল করায় এখন শুধুমাত্র বর্তমান মেয়র আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী কেএম জাকির হোসেন একমাত্র প্রার্থী থাকলেন। তবে স্বতন্ত্র জাকির হোসেন সরকার হাইকোর্টে আপিল করেছেন বৈধতা পাওয়ার জন্য। যদি আদালত তার প্রার্থিতা বহাল রাখেন, তাহলে মেয়র পদে দুইজন প্রার্থী হবেন। এই পৌরসভায় সাধারণ কাউন্সিলর পদে ৩১ জন এবং সংরক্ষিত নারী আসনে ৭ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এর মধ্যে সংরক্ষিত পদে বর্তমান কাউন্সিলর শরীফুন্নেছা শিরিন বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হচ্ছেন।

অপরদিকে দুই ইউনিয়নের দায়িত্বপ্রাপ্ত রিটার্নিং অফিসার গুরুদাসপুর উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ফেরদৌস আলম জানান, জোয়াড়ি ইউনিয়ন পরিষদে চেয়ারম্যান পদে ৩ জন, সাধারণ সদস্য পদে ৪৪ জন এবং সংরক্ষিত নারী সদস্য ৯ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। মাঝগাঁও ইউনিয়ন পরিষদে চেয়ারম্যান পদে ৬ জন, সাধারণ সদস্য পদে ৪০ জন ও সংরক্ষিত নারী সদস্য ১০ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।