গুরুদাসপুরে টিসিবির পণ্য ওজনে কম প্রতিবাদ করায় ৮ ইউপি সদস্যকে হুমকী

বনলতা নিউজ ডেস্ক.বনলতা নিউজ ডেস্ক.
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৭:১২ PM, ২৬ ডিসেম্বর ২০২২

 গুরুদাসপুর (নাটোর) প্রতিনিধি. নাটোরের গুরুদাসপুর উপজেলার চাপিলা ইউনিয়নে (ইউপি) টিসিবির পণ্য ওজনে কম দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে পরিবেশকের (ডিলার) বিরুদ্ধে।
এঘটনার প্রতিবাদ করায় ওই ইউনিয়নের আট  ইউপি সদস্যকে ভয়ভীতি দেখানোর অভিযোগ উঠেছে। ডিলারের দুই প্রতিনিধি সোলায়মান আলী ও নাছির উদ্দিনের বিরুদ্ধে এই অভিযোগ উঠেছে। এঘটনার প্রতিকার চেয়ে ভুক্তভোগী ইউপি সদস্যরা সোমবার ও ১৪ ডিসেম্বর দুই দফা  উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার (ইউএনও) কাছে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।
আগের অভিযোগটির তদন্ত শেষ না হওয়ায় অভিযুক্তরা ইউপি সদস্যদের ওপর ক্ষুব্ধ হয়েছেন। নিরুপায় হয়ে  সোমবার তারা  আরেকটি অভিযোগ দিয়েছেন।  ভুক্তভোগী ইউপি সদস্য প্যানেল চেয়ারম্যান আব্দুল হান্নান, আব্দুর রহমান ও নজরুল ইসলামসহ ওই আট ইউপি সদস্যরা অভিযোগ করে বলেন, জেলার বাগাতিপাড়া উপজেলার  ‘মেসার্স মালেক ট্রেডার্স ’ চাপিলা ইউনিয়নের ২ হাজার ২৪০জনকে ভুর্তুকি মূল্যে তেল চিনি ও ডাল দেওয়ার কাজটি পান।
ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের অবস্থান দূরে হওয়ার কারনে চাপিলা ইউনিয়নের নাছির উদ্দিন ও সোলায়মান আলীকে পণ্য বিতরনের প্রতিনিধি হিসেবে দায়িত্ব দেন ওই ঠিকাদার। সম্প্রতি সুবিধাভোগীদের মাঝে বরাদ্দকৃত পণ্য বিতরনের সময় ১ কেজি চিনির বিপরীতে ২৫০ গ্রাম করে কম দিচ্ছিলেন ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিরা। এসময় সুবিধাভোগীরা ইউপি সদস্যদের কাছে ওজনে কম দেওয়ার বিষয়ে অভিযোগ করলে প্রতিবাদ জানান তাঁরা। এঘটনায় ক্ষুব্ধ হয়ে ঠিকাদারের  দুই প্রতিনিধি ইউপি সদস্যের সাথে অশোভন আচরণসহ ভয়ভীতি দেখাতে থাকেন।  তাঁদের এমন আচরনের বিষয়ে চেয়ারম্যান মাহবুবুর রহমানের কাছে অভিযোগ করেও প্রতিকার পাননি তারা।
ভুক্তভোগী ইউপি সদস্যরা আরো অভিযোগ করে বলেন, ‘ ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের দুই প্রতিনিধি নাছির উদ্দিন ও সোলায়মান আলী এলাকায় প্রভাবশালী ও চেয়ারম্যানের সাথে বিশেষ সম্পর্ক থাকায় এই অন্যায়ের প্রতিকার পাচ্ছেন না  তাঁরা, বাধ্য হয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন ইউপি সদস্যরা।’ এব্যাপারে পরিবেশকের বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি। তবে পরিবেশকের প্রতিনিধি নাছির উদ্দিন অভিযোগটি ভিত্তিহীন দাবী করে বলেন, ‘ ওজনে কম দেওয়া বা ইউপি সদস্যদের ভয়ভীতি দেখানো হচ্ছেনা। আমাকে সামাজিভাবে হেয় করতেই এমন অভিযোগ আনা হচ্ছে তাঁদের বিরুদ্ধে।’
এব্যাপারে চাপিলা ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান মাহবুবুর রহমান মুঠোফোনে বলেন, ‘ টিসিবির পণ্য কম দেওয়া  এবং ইউপি সদস্যদের সাথে অশোভন আচরনের সত্যতা মেলায়  ঠিকাদারের প্রতিনিধিদের মৌখিতভাবে সতর্ক করা হয়েছে। এছাড়া ইউপি সদস্যদের লিখিত অভিযোগটি ইউএনও দপ্তর থেকে তার কাছে এসেছে, সেটির তদন্ত প্রতিবেদনটি প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। তবে ঠিকাদারের দুই প্রতিনিধির সাথে বিশেষ সম্পর্কের অভিযোগটি সত্য নয় বলে দাবী করেন চেয়ারম্যান। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) শ্রাবণী রায় সোমবার শেষবিকালে মুঠোফোনে জানান, ‘ তদন্ত প্রতিবেদন সত্য হলে সংশ্লিষ্ট ঠিকাদারের বিরুদ্ধে বিধিমোতাবেক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

আপনার মতামত লিখুন :