গুরুদাসপুর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন শতবর্ষী বৃদ্ধার পরিচয় মেলেনি এক মাসেও

বনলতা নিউজ ডেস্ক.বনলতা নিউজ ডেস্ক.
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৫:৫০ PM, ২১ জানুয়ারী ২০২৩

গুরুদাসপুর(নাটোর) প্রতিনিধি. গত একমাস ধরে মানুষিক ভারসাম্যহীন শতবছর বয়সী অজ্ঞাত এক বৃদ্ধা নাটোরের গুরুদাসপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। হাসপাতালের ডাক্তার ও স্টাফদের মানবিক চিকিৎসা সেবায় বৃদ্ধা মহিলাটি প্রাণে বেঁচে থাকলেও তার পরিচয় খুঁজে পাওয়া যাচ্ছেনা। এই প্রচন্ড শীতে হাসপাতালের অবজারভেশন কক্ষের বেডে শুয়ে না থেকে মেঝেতে লেপ তোষকের বিছানায় কম্বলকে শরীরের সাথে আঁকড়ে ধরে বেঁচে আছেন ওই বৃদ্ধা। তার পরিচয় খুঁজে পেতে সকলের সহযোগিতা কামনা করেছেন হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

হাসপাতালের ইমারজেন্সি বিভাগের ইনচার্জ মোছা. শারমিন সিদ্দিকি জানান, গত বছরের ১২ ডিসেম্বর অভিভাবকহীন ওই বৃদ্ধাকে গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় হাসপাতাল প্রঙ্গণ থেকে উদ্ধার করা হয়। এসময় তার মাথায় আঘাতের পচনধরা চিহ্ন পাওয়া যায়। তার বয়স প্রায় ১০০ বছর হবে। ভারসাম্যহীন ওই বৃদ্ধা সঠিক চিকিৎসায় সুস্থ হলেও নিজের নাম ঠিকানা বলতে পারছেন না। খাবার খেতে চাইলে ঠিকমতো খেতে পারছেন না। এমনকি দাঁড়াতেও পারছেন না। এমতাবস্থায় অভিভাবকহীন ওই বৃদ্ধার মলমুত্র পরিষ্কার করাসহ সময়মতো দেখভাল করতে গিয়ে হাসপাতালের অন্যান্য কাজ ব্যহত হচ্ছে বলে জানান ইমারজেন্সি বিভাগের ইনচার্জ।
এ ব্যাপারে গুরুদাসপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সেও পঃপঃ কর্মকর্তা ডা. মুজাহিদুল ইসলাম বলেন, এক মাস অতিবাহিত হলেও অজ্ঞাত ওই বৃদ্ধার কোনো পরিচয় পাওয়া যায়নি। তবে উপজেলার সরকারি বিভিন্ন দপ্তরের সঙ্গে মিটিং করে অসহায় ওই বৃদ্ধার পরিচয় খুঁজে বের করার কার্যক্রম চলমান রয়েছে। বর্তমানে ওই বৃদ্ধা সুস্থ আছে বলে জানান তিনি।

আপনার মতামত লিখুন :