শনিবার, ০২ মার্চ ২০২৪, ১৯ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

নগরীতে অটো ও রিক্সা চালকদের মানব বন্ধন

  • Reporter Name
  • Update Time : ০৪:৫৫:০৯ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৭ মে ২০২০
  • ৮২ Time View

নিজস্ব প্রতিবেদক.

বাঁচারমত বাঁচতে চাই অর্থ ও খাদ্য চাই, এই শ্লোগান গান নিয়ে আজ রোববার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে নগরীর বহরমপুর সিটি বাইপাস মোড়ে মানববন্ধন করে অটো ও রিক্সা চালকগণ। অটো চালক ওয়াসিম. শাহিন, আরিফুর রহমান, নিরন, শহিদ, অনিক, হযরত, রুবেল ও জামালসহ অন্যান্যরা বলেন, দীর্ঘ দুইমাস ধরে তারা বেকার হয়ে বসে আছেন। এতে করে প্রতিটি গাড়ির ব্যাটারী নষ্ট হতে বসেছে। সেইসাথে তাদের পরিবার নিয়ে পড়েছেন চরম বিপদে।

তারা বলেন, সরকারী ও বেসরকারীভাবে এ পর্যন্ত তারা কোন প্রকার খাদ্য ও অর্থ সহযোগিতা পাননি। এতে চালকগণ মহাবিপদের মধ্যে জীবন যাপন করছেন। এছাড়াও আর মাত্র কয়েকটি দিন ঈদের বাঁকী রয়েছে। এখন পর্যন্ত তারা ঈদের কোন প্রকার বাজার করতে পারেনি। ছেলে-মেয়েরা তাদের মুখের দিকে তাকিয়ে আছে বলে জানান তারা। তারা আরো বলেন, গত মাসের ২৬ তারিখ দাসপুকুরের মোড়ে তারা একই দাবীতে মানববন্ধন করলেও কেউ এখনো এগিয়ে আসেনি। নিরুপায় তারা পূণরায় এই কর্মসূচী পালন করছেন।
ওয়াসিমসহ অন্যান্যরা বলেন, সরকারীভাবে তাদের যে অর্থ দেয়ার কথা ছিলো এখনো তা কেউ পাননি। তারা সরকারী অনুদান ও তাদের যানবাহন চলাচল করতে দেয়ার দাবী জানান। সেইসাথে পুলিশি হয়রানী বন্ধে প্রশাসনের উচ্চ পর্যায়ের কর্মকর্তাদের অনুরোধ করেন মানববন্ধন থেকে। এই মানবন্ধনে প্রায় ২০০ জন চালক উপস্থিত থাকলেও আরো ২৬০০জন একাত্বতা ঘোষনা করেছেন বলে জানান ওয়াসিম। মানববন্ধন শেষে তারা সকলে মিলে সিটি মেয়র এ.এইচ.এম খায়রুজ্জামান লিটনের সাথে দেখা করার জন্য নগর ভবনের দিকে যান।

Tag :
Popular Post

নগরীতে অটো ও রিক্সা চালকদের মানব বন্ধন

Update Time : ০৪:৫৫:০৯ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৭ মে ২০২০

নিজস্ব প্রতিবেদক.

বাঁচারমত বাঁচতে চাই অর্থ ও খাদ্য চাই, এই শ্লোগান গান নিয়ে আজ রোববার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে নগরীর বহরমপুর সিটি বাইপাস মোড়ে মানববন্ধন করে অটো ও রিক্সা চালকগণ। অটো চালক ওয়াসিম. শাহিন, আরিফুর রহমান, নিরন, শহিদ, অনিক, হযরত, রুবেল ও জামালসহ অন্যান্যরা বলেন, দীর্ঘ দুইমাস ধরে তারা বেকার হয়ে বসে আছেন। এতে করে প্রতিটি গাড়ির ব্যাটারী নষ্ট হতে বসেছে। সেইসাথে তাদের পরিবার নিয়ে পড়েছেন চরম বিপদে।

তারা বলেন, সরকারী ও বেসরকারীভাবে এ পর্যন্ত তারা কোন প্রকার খাদ্য ও অর্থ সহযোগিতা পাননি। এতে চালকগণ মহাবিপদের মধ্যে জীবন যাপন করছেন। এছাড়াও আর মাত্র কয়েকটি দিন ঈদের বাঁকী রয়েছে। এখন পর্যন্ত তারা ঈদের কোন প্রকার বাজার করতে পারেনি। ছেলে-মেয়েরা তাদের মুখের দিকে তাকিয়ে আছে বলে জানান তারা। তারা আরো বলেন, গত মাসের ২৬ তারিখ দাসপুকুরের মোড়ে তারা একই দাবীতে মানববন্ধন করলেও কেউ এখনো এগিয়ে আসেনি। নিরুপায় তারা পূণরায় এই কর্মসূচী পালন করছেন।
ওয়াসিমসহ অন্যান্যরা বলেন, সরকারীভাবে তাদের যে অর্থ দেয়ার কথা ছিলো এখনো তা কেউ পাননি। তারা সরকারী অনুদান ও তাদের যানবাহন চলাচল করতে দেয়ার দাবী জানান। সেইসাথে পুলিশি হয়রানী বন্ধে প্রশাসনের উচ্চ পর্যায়ের কর্মকর্তাদের অনুরোধ করেন মানববন্ধন থেকে। এই মানবন্ধনে প্রায় ২০০ জন চালক উপস্থিত থাকলেও আরো ২৬০০জন একাত্বতা ঘোষনা করেছেন বলে জানান ওয়াসিম। মানববন্ধন শেষে তারা সকলে মিলে সিটি মেয়র এ.এইচ.এম খায়রুজ্জামান লিটনের সাথে দেখা করার জন্য নগর ভবনের দিকে যান।