শনিবার, ০২ মার্চ ২০২৪, ১৯ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

গুরুদাসপুরে কৃষকের জমি লীজের ১লক্ষ ২০ হাজার টাকা ছিন্তাই

  • Reporter Name
  • Update Time : ০৩:০৪:১৭ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ৫ জুন ২০২০
  • ৭১ Time View

নিজস্ব প্রতিবেদক,গুরুদাসপুর.
নাটোরের গুরুদাসপুরে আলামিন নামের এক কৃষককে পিটিয়ে জখম করে তার কাছে থাকা জমি বন্দকের ১ লক্ষ ২০ হাজার টাকা ছিনতাইয়ের অভিযোগ উঠেছে উপজেলার সাবগাড়ী এলাকার মোঃ বুদ্দুর ছেলে ইয়াছীন, চিকু মোল্লার ছেলে হালিম ও জহুরুলের ছেলে বাবুর বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় ভুক্তভোগি কৃষক আলামিন বাদি হয়ে গুরুদাসপুর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন। ভুক্তভোগি কৃষক ওই এলাকার রিয়াজ প্রামানিকের ছেলে।
ভুক্তভোগি কৃষক আলামিন জানান, গত ৩জুন বুধবার আনুমানিক রাত ৯টার সময় উপজেলার বিয়াঘাট ইউনিয়নের সাবগাড়ী বাজার থেকে জমি বন্দকের টাকা নিয়ে বাড়ির উদ্দেশ্যে রওনা হন তিনি। বাজার থেকে পাকা রাস্তায় বাবলুর বাড়ির সামনে দিয়ে যাওয়ার পথে পুর্ব পরিকল্পনা মোতাবেক আসামীরা এলাপাথারিভাবে কিল, ঘুষি, লাথি ও বাঁশের বাটাম দিয়ে পিটাতে থাকে। এক পর্যায় অভিযুক্ত হালিম তার কোমরে থাকা জমি বন্দকের ১ লক্ষ ২০ হাজার টাকা ছিনিয়ে নেয়। তার ডাক চিৎকারে স্থানীয়রা এসে তাকে উদ্ধার করে। এবং স্থানীয় লোকজন আসার পুর্বেই অভিযুক্ত তিন ব্যক্তি পালিয়ে যায়। কিছুক্ষন পরে আইনের আ¤্রয় নেওয়ার জন্য তার পিতা রিয়াজ প্রামানিক গুরুদাসপুর থানার উদ্দেশ্যে রওনা হলে অবদা পাকা রাস্তা নামক স্থানে রানার বাড়ির সামনে অভিযুক্ত ব্যক্তিরাসহ তাদের সহযোগিরা তার পিতার পথ রোধ করে অপহরণ করে নিয়ে চলে যায়। তিনি সহ তার আত্মীয় স্বজন মিলে তার পিতাকে খুজে না পেলে থানা পুলিশ কে খবর দেয়। পরে অবদা বাধ সংলগ্ন একটি খাদে থেকে গুরুত্বর আহত অবস্থায় তার পিতাকে উদ্ধার করা হয়। স্থানীয়দের সহযোগিতায় তার পিতাকে গুরুদাসপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।
গুরুদাসপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) মোঃ মোজাহারুল ইসলাম জানান, অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত করে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে।

 

 

 

 

 

 

Tag :
Popular Post

গুরুদাসপুরে কৃষকের জমি লীজের ১লক্ষ ২০ হাজার টাকা ছিন্তাই

Update Time : ০৩:০৪:১৭ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ৫ জুন ২০২০

নিজস্ব প্রতিবেদক,গুরুদাসপুর.
নাটোরের গুরুদাসপুরে আলামিন নামের এক কৃষককে পিটিয়ে জখম করে তার কাছে থাকা জমি বন্দকের ১ লক্ষ ২০ হাজার টাকা ছিনতাইয়ের অভিযোগ উঠেছে উপজেলার সাবগাড়ী এলাকার মোঃ বুদ্দুর ছেলে ইয়াছীন, চিকু মোল্লার ছেলে হালিম ও জহুরুলের ছেলে বাবুর বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় ভুক্তভোগি কৃষক আলামিন বাদি হয়ে গুরুদাসপুর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন। ভুক্তভোগি কৃষক ওই এলাকার রিয়াজ প্রামানিকের ছেলে।
ভুক্তভোগি কৃষক আলামিন জানান, গত ৩জুন বুধবার আনুমানিক রাত ৯টার সময় উপজেলার বিয়াঘাট ইউনিয়নের সাবগাড়ী বাজার থেকে জমি বন্দকের টাকা নিয়ে বাড়ির উদ্দেশ্যে রওনা হন তিনি। বাজার থেকে পাকা রাস্তায় বাবলুর বাড়ির সামনে দিয়ে যাওয়ার পথে পুর্ব পরিকল্পনা মোতাবেক আসামীরা এলাপাথারিভাবে কিল, ঘুষি, লাথি ও বাঁশের বাটাম দিয়ে পিটাতে থাকে। এক পর্যায় অভিযুক্ত হালিম তার কোমরে থাকা জমি বন্দকের ১ লক্ষ ২০ হাজার টাকা ছিনিয়ে নেয়। তার ডাক চিৎকারে স্থানীয়রা এসে তাকে উদ্ধার করে। এবং স্থানীয় লোকজন আসার পুর্বেই অভিযুক্ত তিন ব্যক্তি পালিয়ে যায়। কিছুক্ষন পরে আইনের আ¤্রয় নেওয়ার জন্য তার পিতা রিয়াজ প্রামানিক গুরুদাসপুর থানার উদ্দেশ্যে রওনা হলে অবদা পাকা রাস্তা নামক স্থানে রানার বাড়ির সামনে অভিযুক্ত ব্যক্তিরাসহ তাদের সহযোগিরা তার পিতার পথ রোধ করে অপহরণ করে নিয়ে চলে যায়। তিনি সহ তার আত্মীয় স্বজন মিলে তার পিতাকে খুজে না পেলে থানা পুলিশ কে খবর দেয়। পরে অবদা বাধ সংলগ্ন একটি খাদে থেকে গুরুত্বর আহত অবস্থায় তার পিতাকে উদ্ধার করা হয়। স্থানীয়দের সহযোগিতায় তার পিতাকে গুরুদাসপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।
গুরুদাসপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) মোঃ মোজাহারুল ইসলাম জানান, অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত করে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে।