স্কুল ছাত্রীকে উত্ত্যক্তের প্রতিবাদ করায় শিক্ষকের হাত ভেঙ্গে দিল বখাটে

মোঃ মাজেম আলীমোঃ মাজেম আলী
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৫:৩৬ PM, ০৮ অক্টোবর ২০২১

গৌরনদী (বরিশাল) প্রতিনিধি.

স্কুল ছাত্রীকে উত্যক্ত করার প্রতিবাদ করায় হামলা চালিয়ে শিক্ষকের হাত ভেঙ্গে দিয়েছে বখাটে ও তার লোকজন। ঘটনাটি গত চারদিন পূর্বে সংঘঠিত হলেও হুমকিতে মামলা করতে সাহস পাচ্ছেন না হামলার শিকার ওই শিক্ষক পরিবার।

অপরদিকে মোটা অংকের বিনিময়ে বিষয়টিকে ধাঁমাচাপা দেয়ার জন্য মরিয়া হয়ে উঠছে একটি মহল। ঘটনাটি বরিশালের গৌরনদী উপজেলার টরকী এলাকার।

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন শিক্ষক কমল হালদার জানান, টরকী বন্দর বালিকা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের দশম শ্রেনীর এক ছাত্রীকে প্রায়ই উত্যক্ত করে আসছিলো সুন্দরদী গ্রামের পালপাড়ার দীপক কর্মকারের বখাটে পুত্র নয়ন কর্মকার। অতি সম্প্রতি বিষয়টি ছাত্রীর অভিভাবকরা তাকে জানানোর পরে সে (শিক্ষক) বখাটে নয়ন কর্মকারকে ডেকে সাশিয়ে দেয়। এতে ওই বখাটে তার (শিক্ষক) ওপর ক্ষিপ্ত হয়।

তিনি আরও জানান, গত মঙ্গলবার নয়ন কর্মকারের বাসার পাশে একটি বাসায় প্রাইভেট পড়িয়ে নিজ বাড়িতে ফেরার পথে রাত নয়টার দিকে টরকী বন্দর সংলগ্ন বণিক বাড়ির সামনে পৌঁছলে পূর্ব থেকে ওঁত পেতে থাকা বখাটে নয়ন কর্মকার ও তার কয়েকজন সহযোগীরা পথরোধ করে কিছু বুঝে ওঠার আগেই ক্রিকেটের ষ্টাম্প দিয়ে অতর্কিত হামলা চালিয়ে রক্তাক্ত জখম করে এবং ডান হাত ভেঙ্গে দেয়। এসময় তার (শিক্ষক) ডাক-চিৎকারে এলাকার লোকজন এগিয়ে আসলে বখাটেরা পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে প্রথমে গৌরনদী উপজেলা হাসপাতাল ভর্তি করেন। সেখান থেকে ওইদিন রাতেই উন্নত চিকিৎসার জন্য বরিশালে প্রেরণ করা হয়। বর্তমানে সে (শিক্ষক) বরিশালের একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

শিক্ষক কমল হালদার অভিযোগ করে বলেন, বখাটে নয়নের পক্ষ নিয়ে একটি মহল হাসপাতালে এসে এবং আমার ভাড়াটিয়া বাসায় গিয়ে আমার পরিবারবর্গকে এ বিষয়ে মুখ খোলাসহ মামলা না করার জন্য সাশিয়ে গেছে।

গৌরনদী মডেল থানার ওসি মোঃ আফজাল হোসেন জানান, এ বিষয়ে এখনও কেউ লিখিত অভিযোগ করেননি। লিখিত অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

আপনার মতামত লিখুন :