গুরুদাসপুরে স্বাধিনতা শিক্ষক পরিষদের শোক দিবস পালন

মোঃ মাজেম আলীমোঃ মাজেম আলী
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৭:১৩ PM, ২৬ অগাস্ট ২০২২

গুরুদাসপুর( নাটোর) প্রতিনিধি.  স্বাধীনতার মহান স্থপতি হাজার বছরের শ্রেষ্ট বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৭তম শাহাদাৎ বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে স্বাধীনতা শিক্ষক পরিষদ গুরুদাসপুর উপজেলা শাখার উদ্যোগে দোয়া মাহফিল ও আলোচনা সভায় অনুষ্ঠিত হয়েছে।

২৬ আগস্ট শুক্রবার বিকেল ৪টার দিকে নাটোরের গুরুদাসপুর সরকারী মডেল পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের হলরুমে গুরুদাসপুর উপজেলা স্বাধীনতা শিক্ষক পরিষদ কর্র্তৃক আয়োজিত জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে দোয়া মাহফিল এর পূর্বে উপজেলার রোজী মোজাম্মেল মহিলা কলেজে জাতীর পিতা বঙ্গবুন্ধ শেখ মুজিবুর রহমান এরঁ প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ, পবিত্র কোরআন তেলোয়াত,গীতা পাঠ ও নিরবতা পালনের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠানের শুরু হয়।

স্বাধিনতা শিক্ষক পরিষদ গুরুদাসপুর উপজেলা শাখার সাধারন সম্পাদক রোজী মোজাম্মেল মহিলা কলেজের বিভাগীয় প্রধান(স.বি) মোঃ মাজেম আলী মলিনের সঞ্চালনায় প্রধান অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন স্বাশিপের নাটোর জেলা কমিটির সভাপতি অধ্যক্ষ মোহাম্মদ তুগলক ও বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক এস এম ফিরোজ।

স্বাশিপের উপজেলা শাখার সভাপতি বিলচলন শহীদ সামসুজ্জোহা সরকারী কলেজের প্রভাষক কৃষিবিদ মোঃ জহুরুল হক সরকারের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন, নাটোর জেলা শাখার সহ-সভাপতি উপাধ্যক্ষ মোঃ আবু সাইদ,সাংস্কৃতিক সম্পাদক প্রভাষক নাসরিন সুলতানা রুমা, প্রধান শিক্ষক ফরিদুল ইসলাম, অধ্যক্ষ মোঃ সাইদুর রহমান, উপজেলা কমিটির সহ-সভাপতি অধ্যক্ষ মোখলেছুর রহমান এলিন, প্রধান শিক্ষক জাহাঙ্গীর আলম মিঠু, প্রভাষক নুরুন্নবী বিরু, যুগ্ম সম্পাদক প্রধান শিক্ষক মোঃ আনিসুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক প্রভাষক ও বিভাগীয় প্রধান মোঃ হাসিবুল ইসলাম মিলন, কোষাধক্ষ্য প্রভাষক আসাদুজ্জামান প্রমুখ।


এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন নাটোর জেলা স্বাশিপের সদস্য ও সহকারী অধ্যাপক রুহুল করিম তুহিন আব্বাসী, প্রধান শিক্ষক দিল রওশনারা, ক্রিড়া সম্পাদক শিক্ষক শামীম আহমেদ, উপাধ্যক্ষ মিজানুর রহমান, সহকারী প্রধান শিক্ষক গোলাম মোস্তফা কামাল. প্রধান শিক্ষক নজরুল ইসলাম, প্রভাষক সেবক কুমার কুন্ডু, প্রভাষক রাশিদুল ইসলাম, প্রভাষক রফিকুল ইসলাম। দোয়া ও মোনাজাত পরিচালনা করেন শিক্ষক মোঃ জহুরুল ইসলাম প্রেস ইমাম গুরুদাসপুর কেন্দ্রীয় জামে মসজিদ।

বক্তারা বঙ্গবন্ধুর জীবন আলেখ্য নিয়ে আলোকপাত শেষে বেসরকারী শিক্ষকদের দৈন্যতা, বেতন বৈষম্য, দ্রব্যমুল্যের লাগামহীন উর্দ্ধোগতির নিয়ে কথা বলেন। তারা আরো বলেন বঙ্গবন্ধু শিক্ষাব্যাবস্থাকে উন্নতি করেছিলেন। স্বাশিপ মুজিব আদর্শের সংগঠন, বদলি বাস্তাবায়ন, গোটা শিক্ষা ব্যাবস্থা কে জাতীয়করণ করা যৌক্তিক দাবি করে বলেন দেশকে এগিয়ে নিতে হলে শিক্ষা জাতীয় করনের কোন বিকল্প নেই । শোক দিবসে দোয়া ও আলোচনা শেষে ৩ শতাধিক দরিদ্র ও রিক্সা-ভ্যান চালকদেও মধ্যে খাবার বিতরণ করেন।

আপনার মতামত লিখুন :