বিয়ের ১০ দিন পর ব্যাংক থেকে যুবকের মরদেহ উদ্ধার

মোঃ মাজেম আলীমোঃ মাজেম আলী
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৭:৪৫ PM, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২২

বিশেষ প্রতিবেদক রংপুর. রংপুরে অগ্রণী ব্যাংকের একটি শাখা থেকে শামীম মিয়া (২৫) নামে এক নিরাপত্তা প্রহরীর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। রোববার (১৮ সেপ্টেম্বর) সকালে নগরীর সেন্ট্রাল রোডের শাখা থেকে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়।

শামীম মিয়া রংপুরের মিঠাপুকুর উপজেলার রানীপুকুর গ্রামের আমজাদ হোসেনের ছেলে। তিনি দেড় বছরের বেশি সময় ধরে আগ্রণী ব্যাংকে নিরাপত্তা প্রহরীর দায়িত্ব পালন করছিলেন।

ওই ব্যাংকের ব্যবস্থাপক আরিফুল ইসলাম বলেন, শামীম সেখানে ১৭ মাস থেকে নিরাপত্তা প্রহরী হিসেবে দায়িত্ব পালন করে আসছিলেন। ১০ দিন আগে তিনি বিয়ে করেছেন। রোববার সকালে শাখার লোকজন ব্যাংকে এসে দেখতে পান শামীম শুয়ে আছেন। অনেক ডাকাডাকির পরও কোনো সাড়া-শব্দ না পাওয়ায় তাদের সন্দেহ সৃষ্টি হয়।

কাছে গিয়ে দেখেন শামীমের মুখ দিয়ে লালা ঝরছে এবং তিনি মারা গেছেন। সঙ্গে সঙ্গে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসকে খবর দেওয়া হয়। পরে পুলিশ এসে মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছে।

এদিকে শামীমের ভাই শরিফুল বলেন, শামীম প্রতিদিন সন্ধ্যায় বাড়ি যেত এবং সকালে ব্যাংকে আসত। কিন্তু গতকাল সে বাড়িতে যায়নি। হঠাৎ কী হয়ে গেল, তা এখনো কেউ বুঝে উঠতে পারছি না।

রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের কোতোয়ালি থানার পরিদর্শক (তদন্ত) হোসেন আলী বলেন, মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। এটি হত্যা নাকি আত্মহত্যা তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

আপনার মতামত লিখুন :