বৃহস্পতিবার, ১৬ মে ২০২৪, ২ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

তাড়াশে পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রী ধর্ষণের শিকার

 সিরাজগঞ্জের তাড়াশে পঞ্চম শ্রেণির এক ছাত্রী ধর্ষণের শিকার হয়েছে। দেশীগ্রাম ইউনিয়নের চেয়ারম্যান জ্ঞানেন্দ্র নাথ বসাক ধর্ষণের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। এ ব্যাপারে তাড়াশ থানায় মামলা দায়ের হয়েছে। ঘটনার পর থেকেই ধর্ষণ পলাতক রয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে সোমবার (১৫ এপ্রিল) সকালে উপজেলার দেশীগ্রাম ইউনিয়নের শাকমাল গ্রামে।

এব্যাপারে ওই দিন রাতেই ধর্ষিতার ভাই মো. কামরুজ্জামান বাদী হয়ে তাড়াশ থানায় ধর্ষণ মামলা দায়ের করেছেন। মামলার বিষয়টি তাড়াশ থানার ওসি মো. নজরুল ইসলাম নিশ্চিত করেছেন।

মামলা সূত্রে জানাগেছে, গত সোমবার (১৫ এপ্রিল) সকাল দশটার দিকে উপজেলার দেশীগ্রাম ইউনিয়নের শাকমাল গ্রামের ওই পঞ্চম শ্রেণীর ওই ছাত্রী নিজ বাড়িতে তাদের গোয়াল ঘর পরিষ্কার করার জন্য প্রবেশ করলে প্রতিবেশী মো. আব্দুর মান্নানের ছেলে রাসেল ওই গোয়াল ঘরে ঢুকে তাকে জোরে পূর্বক ধর্ষক করতে থাকে। তার চিৎকারে পাশের বাড়ির গৃহবধু সহ অনেকেই এগিয়ে এলে ধর্ষক রাসেল ঘর থেকে পালিয়ে যায়। ধর্ষণে প্রচন্ড রক্তক্ষরণে সে অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে সিরাজগঞ্জ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে ।

এ প্রসঙ্গে ধর্ষিতার বাবা বলেন, বাড়ীতে একা পেয়ে আমার মেয়েকে যে সর্বনাশ করেছে। আমি তার সর্বোচ্চ শাস্তির দাবী জানাচ্ছি। স্থানীয় লোকজন জানান,এ ন্যাক্কার জনক ঘটনার তীব্র নিন্দা জানাই এবং ধর্ষককে দ্রুত গ্রেফতার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানাচ্ছি।

এ প্রসঙ্গে তাড়াশ থানার ওসি মো. নজরুল ইসলাম বলেন, এ বিষয়ে থানায় একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের হয়েছে। আসামী গ্রেপ্তারের জোর চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।

Tag :
About Author Information

Daily Banalata

তাড়াশে পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রী ধর্ষণের শিকার

Update Time : ০৬:০৫:১১ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৪

 সিরাজগঞ্জের তাড়াশে পঞ্চম শ্রেণির এক ছাত্রী ধর্ষণের শিকার হয়েছে। দেশীগ্রাম ইউনিয়নের চেয়ারম্যান জ্ঞানেন্দ্র নাথ বসাক ধর্ষণের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। এ ব্যাপারে তাড়াশ থানায় মামলা দায়ের হয়েছে। ঘটনার পর থেকেই ধর্ষণ পলাতক রয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে সোমবার (১৫ এপ্রিল) সকালে উপজেলার দেশীগ্রাম ইউনিয়নের শাকমাল গ্রামে।

এব্যাপারে ওই দিন রাতেই ধর্ষিতার ভাই মো. কামরুজ্জামান বাদী হয়ে তাড়াশ থানায় ধর্ষণ মামলা দায়ের করেছেন। মামলার বিষয়টি তাড়াশ থানার ওসি মো. নজরুল ইসলাম নিশ্চিত করেছেন।

মামলা সূত্রে জানাগেছে, গত সোমবার (১৫ এপ্রিল) সকাল দশটার দিকে উপজেলার দেশীগ্রাম ইউনিয়নের শাকমাল গ্রামের ওই পঞ্চম শ্রেণীর ওই ছাত্রী নিজ বাড়িতে তাদের গোয়াল ঘর পরিষ্কার করার জন্য প্রবেশ করলে প্রতিবেশী মো. আব্দুর মান্নানের ছেলে রাসেল ওই গোয়াল ঘরে ঢুকে তাকে জোরে পূর্বক ধর্ষক করতে থাকে। তার চিৎকারে পাশের বাড়ির গৃহবধু সহ অনেকেই এগিয়ে এলে ধর্ষক রাসেল ঘর থেকে পালিয়ে যায়। ধর্ষণে প্রচন্ড রক্তক্ষরণে সে অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে সিরাজগঞ্জ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে ।

এ প্রসঙ্গে ধর্ষিতার বাবা বলেন, বাড়ীতে একা পেয়ে আমার মেয়েকে যে সর্বনাশ করেছে। আমি তার সর্বোচ্চ শাস্তির দাবী জানাচ্ছি। স্থানীয় লোকজন জানান,এ ন্যাক্কার জনক ঘটনার তীব্র নিন্দা জানাই এবং ধর্ষককে দ্রুত গ্রেফতার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানাচ্ছি।

এ প্রসঙ্গে তাড়াশ থানার ওসি মো. নজরুল ইসলাম বলেন, এ বিষয়ে থানায় একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের হয়েছে। আসামী গ্রেপ্তারের জোর চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।