গুরুদাসপুরে অধ্যাপক আব্দুল কুদ্দুস সেতুর উদ্ভোদন

বনলতা নিউজ ডেস্ক.বনলতা নিউজ ডেস্ক.
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ১২:১৬ PM, ১১ নভেম্বর ২০২০

গুরুদাসপুর (নাটোর) প্রতিনিধি.
অধ্যাপক আব্দুল কুদ্দুস সেতুর ভিত্তিপ্রস্থর স্থাপন অনুষ্ঠান উপলক্ষে যেন মানুষের ঢল নেমেছিল মোল্লাবাজার আব্দুল কুদ্দুস সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে। মঙ্গলবার বেলা ৪টায় থেকে নানা শ্রেণি পেশার সকল বয়সী মানুষ দলে দলে উপজেলার মোল্লাবাজারে সমবেত হতে শুরু করে। কোনো বিশেষ উৎসবেও এমন লোকের ঢল নামে না, কিন্তু একটি সেতুর ভিত্তি স্থাপনে সেই ঢল দেখে খোদ অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি সাবেক প্রতিমন্ত্রী নাটোর জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি নিজেও বিস্মিত হন।
অনুষ্ঠানে বক্তব্যে তিনি জানান, নাজিরপুর ও বিয়াঘাট ইউনিয়নের সাথে এই সেতু দুই পাড়ের মানুষের মাঝে সেতুবন্ধন তৈরী করবে। তাদের দীর্ঘদিনের প্রত্যাশা যে পূরণ হতে চলেছে সেই বিষয়টি দেখার জন্যই এতো মানুষ এসেছে।’সেতুটি নির্মান হলে এই এলাকার আর্থসামাজিক অবস্থা বদলে যাবে।
বহুল কাঙ্খিত সেই সেতুটি গুরুদাসপুর উপজেলার মোল্লাবাজার নামকস্থানে নন্দকুজা নদীর ওপরে নির্মিত হচ্ছে। দুই ইউনিয়নের ২০ গ্রামের লক্ষাধিক মানুষ সেতুটি নির্মাণের জন্য দীর্ঘদিন ধরে দাবি জানিয়ে আসছিলেন। এবার সেই সেতু নির্মাণ শুরু হচ্ছে জেনেই আনন্দ উৎসবে মেতে ওঠেছে নদী পাড়ের হাজার হাজার মানুষ। সেতুটি নির্মাণ ব্যয় ধরা হয়েছে ৪ কোটি ৮৪ লক্ষ ৬৫ হাজার ৩২৯ টাকা। চুক্তি মুল্য ধরা হয়েছে ৪ কোটি ৫৫ লক্ষ ৫৭ হাজার ৪০৯ টাকা।
বিয়াঘাট ইউপি চেয়ারম্যান প্রভাষক মোজাম্মেল হকের সভাপতিত্বে ভিত্তিপ্রস্থর স্থাপন শেষে এক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি এমপি আব্দুল কুদ্দুস ছাড়াও উপজেলা চেয়ারম্যান মো. আনোয়ার হোসেন, নাটোর এলজিইডির নির্বাহী প্রকৌশলী শহিদুল ইসলাম, পৌর আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক আরিফুল ইসলাম বিপ্লব, ভাইচ চেয়ারম্যান মো. আলাল শেখ, নাজিরপুর ইউপি চেয়ারম্যান মো. শওকত রানা লাবু, এমপি পূত্র আসিফ আবদুল্লাহ বীন কুদ্দুস শোভন, পৌর আওয়ামীলীগের যুগ্মসাধারন সম্পাদক রেজাউল করিম সবুজ প্রমুখ বক্তব্যে রাখেন।

আপনার মতামত লিখুন :